প্রাথমিক বিদ্যালয় নিয়ে মন্ত্রণালয়ের নতুন উদ্যোগ

প্রকাশিত: ৭:৪৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯ | আপডেট: ৭:৪৮:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সারাদেশের ৬৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গণিত ক্লাসকে আনন্দদায়ক করে তোলার জন্য ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পিডিইপি-৪এর একটি সাব কম্পোনেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় এসব স্কুলে আগামী বছ্ থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিশুদেরকে সহজভাবে গণিত শেখানোর কৌশল প্রয়োহ ও শ্রেণিকক্ষকে আকর্ষণীয় করা হবে। আর এর পরের বছর অর্থাৎ ২০২১ সালি থেকে প্রাথমিকের সকল শ্রেণিতে (তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চমসহ) এটি বাস্তবায়ন করা হবে।

এজন্য ১লাখ ৩০ হাজার শিক্ষককে দুইদফায় ৮দিন করে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে অভিজ্ঞ করে তোলা হবে। আর একশ জনের একটি কোর ট্রেইনার পুল তৈরি করা হচ্ছে। দেশের প্রতি উপজেলা থেকে ৬জন করে ৩হাজারের অধিক মাস্টার ট্রেইনার নিয়ে পুল গঠন করা হবে।

এসকল ট্রেইনাররা বিদ্যালয়ে গণিত বিষয়ে পাঠদানকারী শিক্ষককে গণিত অলিম্পিয়ার্ড কৌশলের উপর প্রশিক্ষণ দেবে। পরে প্রশিক্ষণ পাওয়া শিক্ষকরা তাদের লব্দ জ্ঞান,কৌশল তাত্ত্বিক প্রয়োগের মাধ্যমে গণিত ক্লাসকে আকষর্ণীয় ও সহজতর করে তুলবেন। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র এতথ্য জানিয়েছে।

এবিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল হোসেন বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের মাঝ থেকে গণিত ভীতি দূর করার জন্য এই উদ্যোগটি নিয়েছি। আগামী বছর থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণি পরবতী বছর থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত বাস্তবায়ন হবে। আশা করি এই অলিম্পিয়ার্ডের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা গণিত ভীতি থেকে মুক্তি পাবে।