প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে স্বামীর কাণ্ড

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:০২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮ | আপডেট: ৩:০২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮

প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ধারালো অস্ত্র দিয়ে প্রেমিককে কুপিয়ে খুন করেছেন এক ব্যক্তি। স্বামীর আক্রোশের হাত থেকে নিস্তার পাননি স্ত্রীও। স্ত্রীকেও খুনের চেষ্টা করেন তিনি। পরে পুলিশ গিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় স্ত্রীকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভারতের পূর্ব মেদিনীপুরে এ চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে।

এ বিষয়ে জিনিউজে প্রকাশিত প্রতিবেদেন বলা হয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগরের দক্ষিণ বরোজ গ্রামের বাসিন্দা লালু হাতি। কর্মসূত্রে কলকাতায় থাকতেন লালু। বাড়িতে লালুর স্ত্রী একাই থাকতেন। অভিযোগ, সেই সুযোগে লুকিয়ে অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন লালুর স্ত্রী। প্রতিবেশী যুবক নাড়ু জনার সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল তার। ফাঁকা বাড়িতে নিয়মিত যাতায়াত ছিল নাড়ুর।

স্ত্রীর পরকীয়ার বিষয়টি নজর এড়ায়নি লালুর। সন্দেহ অনেকদিন ধরেই করছিলেন। হাতেনাতে ধরতে বৃহস্পতিবার রাতে স্ত্রীকে কিছু না জানিয়েই বাড়িতে এসে হাজির হন লালু। ঘরে পা দিয়েই লালু দেখেন, তিনি যা সন্দেহ করেছিলেন, সব সত্যি। ঘরে ঢুকতেই স্ত্রীকে আপত্তিকর অবস্থায় চোখে পড়ে তার। দেখেন, প্রেমিকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে শুয়ে রয়েছেন স্ত্রী।

এদৃশ্য দেখেই আর মাথা ঠিক রাখতে পারেননি স্বামী লালু। সঙ্গে সঙ্গেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্ত্রীর প্রেমিক নাডুকে কুপিয়ে খুন করেন। শুধু প্রেমিককে খুন করেই ক্ষান্ত হননি লালু। তারপর স্ত্রীকেও খুনের চেষ্টা করেন তিনি। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর জখম হন স্ত্রী। তার চিত্কারে ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা।

তারাই পুলিশে খবর দেন। পুলিশ গুরুতর জখম অবস্থায় গৃহবধূকে উদ্ধার করে তমলুক জেলা হাসপাতালে পাঠায়। অন্যদিকে, নাড়ু জনার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।