ফায়ার সার্ভিসের ভুলে পুড়ে ছাই রাজমিস্ত্রির স্বপ্ন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৪৬ অপরাহ্ণ, মে ৫, ২০২১ | আপডেট: ৯:৪৬:অপরাহ্ণ, মে ৫, ২০২১

মিজানুর রহমান নয়ন, কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি : ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি পথ ভুলে চলে গেল অন্যত্র। এতেই কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পুড়ে ছাই রাজমিস্ত্রিরর স্বপ্নের ৪টি ঘর, আসবাবপত্র, নগদ টাকাসহ তৈজসপত্রাদি।

বুধবার (৫ মে) ভোর বেলায় উপজেলার নন্দনালপুর ইউনিয়নের পুরাতন চড়াইকোল আলমগীর হোসেনের বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, আলমগীর রাজমিস্ত্রির কাজ করে। অনেক কষ্টে মাথা গোজার ঘর করেন। কিন্তু বুধবার ভোর ছয়টার দিকে হঠাৎ বৈদ্যুতিক ফ্যানে আগুন জ্বলে উঠে। মুহূর্তে সেই আগুন ছড়িয়ে পরে সমস্ত ঘরে।

প্রতিবেশীরা টের পেয়ে আগুন নিভানোর চেষ্টা করেন এবং ফায়ার সার্ভিসে ফোন দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি প্রথমে ভুল করে অন্যত্র চলে যায়। এরপর ঘণ্টাখানেক পরে ঘটনাস্থলে পৌছায়। কিন্তু দেরিতে পৌছানোয় ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ফিরিয়ে জনগণ। ফলে মুহূর্তের মধ্যেই বাড়িটি ৪টি ঘর পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। এতে ঘরে থাকা নগদ টাকা, আসবাবপত্র ও তৈসজপত্রাদিসহ সব পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

এব্যাপারে আলমগীর হোসেন আলম বলেন, সেহরি খেয়ে আমরা ঘুমিয়ে ছিলাম। হঠাৎ ভোরে প্রকট শব্দ শুনতে পেয়ে ঘুম ভেঙে যায়। পরে দেখতে পাই ঘরের ফ্যান ও তারে আগুন জ্বলছে। আগুন দেখে চিৎকার শুরু করলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে আগুন নিভানোর চেষ্টা করে।

তিনি আরো বলেন, ঘর থেকে বেড় হতে পাড়লেও মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতো দিনের জমানো সব কিছু শেষ হয়ে গেছে। আমি এখন নিঃস্ব হয়ে গেছি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নন্দনালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নওসের আলী বিশ্বাস বলেন, আগুন লাগার সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিসে ফোন দিই। কিন্তু তারা সময়মত আসতে না পারায় সব পুড়ে গেছে।

কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা আব্দুল হালিম জানান, ছয়টায় আগুনের ঘটনা ঘটে। সাত টা পনের মিনিটে আমাদের কাছে ফোন আসে। ফোন পেয়ে ১০ মিনিটেই পাওয়া ঠিকানায় পৌছায়। কিন্তু ঠিকানা ভুল থাকায় ঘটনাস্থলে পৌছাতে দেরি হয়। তিনি আরো বলেন, পৌছাতে দেরি হওয়ায় এলাকাবাসী আমাদের ফিরিয়ে দেয়। তবে সেসময়ও আগুন জ্বলছিল।