ফুলবাড়ীয়ায় মাস্ক ছাড়াই চেয়ারম্যানের ভিজিএফ বিতরণ

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:১৭ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২১ | আপডেট: ৮:১৭:অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২১

আবুল কালাম, ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলার দেওখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান হাদী তিন দিন ধরে মাস্ক পড়া ছাড়াই ভিজিএফের কার্ড ( আর্থিক) বিতরণ করছেন।

তিনি নিজে মাস্ক না পরলেও তার সাথে থাকা সহকারীরা কেউ মাস্ক পড়েনি। চেয়ারম্যান নিজে মাস্ক বিহীন কার্ড বিতরণ করে নিজে যেমন বিপদের ঝু^ঁকিতে তেমনি ঝুঁেিকত কার্ডারীরাও। এ ইউনিয়নে ভিজিএফ কার্ডধারী রয়েছেন ৫ হাজার ১শ ২৫ জন। রবিবার (৯ মে) ছিল কার্ড বিতরণের শেষ দিন।

ভিজিএফ কার্ডের তদারকী কর্মকর্তা ও সহকারী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আসিফ আহমেদ রাজিব বলেন, মাস্ক বিহীন কার্ড বিতরণ ঠিক হয়নি।

সরেজমিন ঐ ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে দেখা গেছে, কার্ড নিয়ে চেয়ারম্যানের সাথে মেম্বারদের দ্বদ্ধের কারনে কোন মেম্বার উপস্থিত ছিলেন না বিতরণের সময়।

রবিবার বিতরণের শেষ দিনে ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের কার্ডধারীরা ভীড় করেছিলেন। চেয়ারম্যান একাই মাস্ক ছাড়াই কুন্ডুলী পাকানো কার্ডধারীর মাঝখানে বসে কার্ডধারীদের মধ্যে টাকা বিতরণ করছেন।

শত শত কার্ডধারী হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন চেয়ারম্যানের টেবিলের উপর। চলেছে ধাক্কাাক্কিও। পাশের চেয়ারে বসা তদারকী কর্মকর্তা ও ইউপি সচিব। বারান্দায় দাড়িয়ে এক গ্রাম পুলিশ গণটিপ নিচ্ছেন।

এটা হচ্ছে ভিজিএফের মাস্টাররুল বলে জানান নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গ্রাম পুলিশ। কার্ড নিয়ে আসা এক বৃদ্ধ জানান, চেয়ারম্যানের মাস্ক নাই আমাদের দিয়ে কি হবে।

নো মাস্ক নো সার্ভিস নিয়ে কথা হয় তদারকী কর্মকর্তার সাথে তিনি বলেন, মাস্ক বিহীনভাবে চেয়ারম্যানের কার্ড বিতরণ ঠিক হয়নি। আমাদের কি করার আছে।

উপজেলার কুশমাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল হক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকতা বিধান চন্দ্র দেবনাথ।

উল্লেখ্য, গত বছর ঈদুল ফিতরে ভিজিএফের চাল বিতরণ করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান বালিয়ান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফ উজ্জামান।