ফেসবুকে গুজব: এ পর্যন্ত ৫ নারী গ্রেফতার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৫৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৮, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৫৮:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৮, ২০১৮

টিবিটি নির্বাচিত: নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এ পর্যন্ত ৫ জন নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্য শিক্ষক, ব্যবসায়ী ও ছাত্রী রয়েছে। একজনকে আটকের পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকী ৪ জন রিমান্ড, কারাগার ও হাসপাতালে আছেন। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে গুজব ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়ে ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমের উসকানিদাতা হিসেবে ২৮টি ফেসবুক ও টুইটার আইডি শনাক্ত করেছে পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ। ছাত্র আন্দোলনে উসকানির দেওয়ার অভিযোগে ৫১ মামলায় এখন পর্য়ন্ত ৯৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

  • ব্যবসায়ী ফারিয়া মাহজাবিন: ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফারকৃত ফারিয়া মাহজাবিনকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। ১৭ আগস্ট গ্রেফতারের পর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম মঈন উদ্দিন সিদ্দিকীর আদালতে হাজির করা হয় তাকে। এসময় মাহজাবিনের ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। গ্রেফতারকৃত ফারিয়া মাহজাবিন (২৮) ধানমণ্ডিতে নওয়াব নামে একটি কফি শপ চালান।

র‌্যাব জানিয়েছে, আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন রকম স্ট্যাটাস ও উস্কানিমূলক মিথ্যা তথ্য সম্বলিত আডিও ক্লিপ রেকর্ড করে পোস্ট করতেন তিনি। মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করে ফেসবুক ও মেসেঞ্জারের মাধ্যমে ছাত্র আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে বিভ্রান্তমূলক স্ট্যাটাস প্রকাশ করেন। গোয়েন্দা সূত্রে বিষয়টি জানতে পারে অভিযান চালিয়ে মাহজাবিনকে গ্রেফতার করা হয়।

  • ইডেন ছাত্রী লুৎফন নাহার লুনা: তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় কোটা সংস্কার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফন নাহার সরকার লুনাকে (২১) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বুধবার ভোরে সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার বড়ধুল ইউনিয়নের ক্ষিপ্রচাপড়ি গ্রামের দাদাবাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। লুনা ঢাকা ইডেন কলেজের ছাত্রী। তিনি বড়ধুল ইউনিয়নের ক্ষিপ্রচাপড়ি গ্রামের আবদুল কুদ্দুসের মেয়ে।

 

  • ঢাবি ছাত্রী তাসনিম আফরোজ ইমি : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী শেখ তাসনিম আফরোজ ইমিকে জিজ্ঞাসাবাদের পর মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। ১৪ আগস্ট রাত ১১টার পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান বলেন, সম্প্রতি বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে বিভিন্ন কন্টেন্ট ছড়ানোয় ওই ছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছিল। মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

 

  • স্কুল শিক্ষিকা সোনিয়া : নিরাপদ সড়কের দাবিতে স্কুল শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন নিয়ে ফেসবুকে বিভিন্ন উস্কানিমূলক পোস্ট এবং অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নুসরাত জাহান সোনিয়া (২৬) নামে এক স্কুল শিক্ষিকাকে কলাপাড়া থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ৫ আগস্ট তাকে গ্রেফতার করা হয়।

 

  • অভিনেত্রী নওশাবা : ফেসবুক লাইভে ছাত্র মৃত্যুর গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন অভিনেত্রী ও মডেল কাজী নওশাবা আহমেদ।৪ আগস্ট রাজধানীর উত্তরা থেকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) একটি দল তাকে গ্রেফতার করে। গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার ফারিয়াকে দুইবার রিমান্ডে নেওয়া হয়। বর্তমানে হাসপাতালে আছেন।

বিএনপি নেত্রী ফাতেমা বাদশা: চলমান ছাত্র আন্দোলনে উস্কানি দেয়ার অভিযোগে চট্টগ্রামের এক বিএনপি নেত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার হওয়া ওই নেত্রীর নাম ফাতেমা বাদশা।    ৪ আগস্ট শুক্রবার রাতে নগরীর ডবলমুরিং থানার সুপারীওয়ালা পাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার হওয়া ফাতেমা বাদশা চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা দলের সিনিয়র সহ সভাপতি।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে এমইএস বাসস্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের দুই বাসের চালকের রেষারেষিতে বাসচাপায় মিম ও রাজীব নামের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। আহত হয় আরও ১০-১৫ জন শিক্ষার্থী।

এ দুর্ঘটনার পর নিরাপদ চড়ক চাই আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলনে অভিযুক্তরা উদ্দেশ্যমূলকভাবে ফেসবুকে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা, বানোয়াট ছবি, গুজব সংবাদ পোস্ট দিতেন।দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভিন্ন খাতে নেয়ার জন্য বিভ্রান্তমূলক স্ট্যাটাস দিতেন।