ফ্রান্সে মসজিদ বন্ধের সিদ্ধান্তে আদালতেরও সমর্থন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:২৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০২০ | আপডেট: ৯:২৫:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০২০

মহানবী (সা.) কে অবমাননায় এক ব্যক্তিকে হত্যার ঘটনায় রাজধানী প্যারিসের একটি মসজিদ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল ফরাসি কর্তৃপক্ষ। সরকারের সেই সিদ্ধান্তে এবার সমর্থন জানিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ প্রশাসনিক আদালত।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি শ্রেণিকক্ষে মহানবীর ব্যক্তিচিত্র দেখানোয় স্যামুয়েল প্যাটি নামে এক শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করা হয়। হামলাকারী চেচেন বংশোদ্ভূত আব্দুল্লাখ আনজরভ পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয়।

পরে সেই ঘটনার পর ছয় মাসের জন্য উত্তর পূর্ব প্যারিসের প্যানটিন মসজিদটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ সময় দেশটির একটি মুসলিম এনজিও বন্ধ করে সরকার। বন্ধ করে দেওয়ার সরকারি আদেশের বিরুদ্ধে আদালতে আবেদন করে মসজিদ পরিচালনা কমিটি।

এদিকে এনজিওটি বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়ে সরকার জানায়, উগ্রপন্থী মুসলিমদের সাথে সম্পর্ক এবং সন্ত্রাসবাদী হামলায় সমর্থন রয়েছে এর। তাছাড়া সংস্থাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হিংসাত্মক ও বৈষম্যমূলক বার্তা ছড়াচ্ছে। অভিযোগ অস্বীকার করে এনজিওটির পক্ষ থেকেও আদালতে আবেদন করা হয়।

সরকারের এ পদক্ষেপের সমর্থন দিয়ে আদালত জানায়, সহিংস ও বৈষম্যমূলক বার্তা ছড়ানোয় এনজিওটিকে বন্ধ করে দিতে সরকারের আদেশ যুক্তিযুক্ত।

একই যুক্তি দেখিয়ে মসজিদটি বন্ধে সরকারের পদক্ষেপের সমর্থন জানিয়েছে আদালত। মসজিদ কমিটির সদস্যদের মন্তব্য এবং তারা যে ধরনের বিষয়ে আলোচনা করে তা সহিংসতা ছড়াতে পারে বলে অভিমত আদালতের।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে