বশেমুরবিপ্রবিতে বিদ্যার দেবীর কাছে জ্ঞান-বুদ্ধি ও সমৃদ্ধি কামনা

প্রকাশিত: ৩:৩৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯ | আপডেট: ৩:৩৭:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯

শাফিউল কায়েস, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজার আয়োজন করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সনাতন সংঘ এ পূজার আয়োজন করে।

রবিবার ( ১০ ফেব্রুয়ারি) প্রতিবারের ন্যায় এবারও  বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় পূজা মন্দিরে দেবী সরস্বতীর পূজা উদযাপিত হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন । সরস্বতী  পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি ড. নিশীথ কুমার পালের  সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে  উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সহকারী  অধ্যাপক তাপস বালা,  ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ঈশিতা রায়,ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সুকান্ত বিশ্বাস, লেকচারার পান্থ প্রতিম সরকার,প্রণিতা দত্ত, তন্ময় বর্ধন  প্রমুখ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন বলেন, ‘এবারের আয়োজন অন্য যেকোনোবারের তুলনায় বড় পরিসরে হচ্ছে। এবার অনেক বড় ও সুন্দর পরিবেশে সরস্বতী পূজা উদযাপিত হয়েছে।’

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, পূজাকে কেন্দ্র করে বর্ণিল আলোক সাজে সজ্জিত হয়েছে পুরো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা ব্যস্ত শেষ সময়ে প্রতিমা ও মণ্ডপের সাজসজ্জায়।

পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী অর্পন কৃষ্ণা বলেন, ‘প্রতিবারের মতো এবারও আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে জাকজমক  আয়োজনে বিদ্যার দেবী সরস্বতীর পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।’

অজ্ঞতার অন্ধকার থেকে জ্ঞানের আলো পেতে অসংখ্য ভক্ত ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা -কর্মচারীরা বিদ্যাদেবী সরস্বতীর চরণে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ ও পূজা অর্চণা করেন।
সকাল থেকেই শিক্ষক-শিক্ষার্থী, ভক্ত ও দর্শনার্থীদের মিলন মেলায় পরিণত হয় প্রাঙ্গণ। সকাল ৮টায় শুরু হয়েছে পূজা অর্চনা,  ১০ টায় অঞ্জলি প্রদান; অঞ্জলি প্রদান শেষে প্রসাদ বিতরণ করা হয়।