বাংলাদেশিদের কারণে কলকাতায় সেতু ধসে পড়েছে: বিজেপি নেতা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:৩০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৩৬:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮

টিবিটি সারাবিশ্বঃযে কোন দেশে বড় কোন ঘটনা ঘটলে তার দায় বা হাজারো প্রশ্নের জবাব দিতে হয় সরকারি ক্ষমতায় থাকা দলের নেতাদের বা দায়িত্ব প্রাপ্ত ব্যক্তিদের। এ সব বিষয় নিয়ে তাদের নানা ধরনের কথা বলতে হয়। ঠিক তেমনি ঘটনা গুলোর দায়ও নিজেদের ঘাড়ে নিতে হয় তাদের।

কিন্তু কিছু কিছু সময় দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতদা বা মন্ত্রীরা কিছু মন্তব্য করেন যা নিয়ে মানুষ হাস্যরস করে আবার অনেক অবাক হন তাদের এমন কান্ড জ্ঞানহীন কথার কারনে। যার ফলে দল বা সরকার কে পরতে হয় না ধরনের সমালোচনার মুখে। এবার এমনি এক ঘটনা ঘটালেন ভারেতর ক্ষমতাসিন দল বিজেপির এক নেতা।

কলকাতার মাঝেরহাট সেতু ধসে পড়ার জন্য বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীদের দোষ দিয়েছেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির পশ্চিমবঙ্গের সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

গত মঙ্গলবার মাঝেরহাট সেতু ধসে পড়ার পর যে রাজনৈতিক বাক্যবিনিময় চলছে, তার মধ্যে হঠাৎ করেই দিলীপ ঘোষের এ ধরনের উদ্ভট কথা অনেককেই অবাক করে দিয়েছে।

দিলীপ বলেন, কলকাতার সব সেতুর নীচে বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীরা থাকেন। ওনারা রান্না করেন, তাতে ধোঁয়া হয় আর এইজন্য সেতু দুর্বল হয়ে যায়। তিনি আরো বলেন, আমি তাই বারবার বলছি বাংলাতেও এনআরসি (নাগরিকত্বের তালিকা) দরকার। সেতু ভেঙে পড়ার জন্য বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীদের দোষ দেওয়া যায় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি বলেন, কলকাতা ও শহরতলির আশেপাশে সরাসরি জমি দখল করে বসে আছে এইসব অনুপ্রবেশকারীরা। এনআরসি ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। বিভিন্ন ধরনের বেফাঁস মন্তব্য করে তিনি আগেও বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। কিন্তু আজকের মন্তব্য সব কিছু ছাপিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে একজন আমলা বলেন, এত হাস্যকর ব্যাপার কী করে উনি বললেন বুঝতে পারছি না।