বাংলাদেশীদের জন্য ইউনেস্কো-জাপান শিক্ষা পুরষ্কার, প্রত্যেকে পাবেন ৫০,০০০ ডলার

প্রকাশিত: ৭:১০ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০১৯ | আপডেট: ৭:১০:অপরাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০১৯

ইউনেস্কো-জাপান স্থায়ী উন্নয়নের জন্য শিক্ষা পুরষ্কারের জন্য বাংলাদেশ থেকে মনোনয়ন আহ্বান করা হয়েছে। ইউনেস্কোর ১৯৫তম বোর্ড সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ পুরষ্কারের প্রবর্তন করা হয়। যে সকল ব্যক্তি, সংস্থা অথবা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার টেকশই উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখছে তাদেরকে উক্ত পুরষ্কারে ভূষিত করা হবে। প্রত্যেক সদস্য রাষ্ট্র থেকে সরকারি এবং বেসরকারিভাবে ৩জন প্রার্থীর মনোনয়ন আহ্বান করা হয়েছে।

পাঁচজন বিশেষজ্ঞের সমন্বয়ে গঠিত একটি স্বাধীন আন্তর্জাতিক জুরির প্রত্যয়নের উপর ভিত্তি করে ইউনেস্কোর মহাপরিচালক তিনজন বিজয়ীকে নির্বাচিত করবেন। জাপান সরকারের অর্থায়নে প্রত্যেক পুরষ্কার বিজয়ীকে ৫০,০০০ ইউ এস ডলার প্রদান করা হবে।

সুযোগ সুবিধাসমূহ

  • সরকারি ঘোষণার আগে ইউনস্কো সকল প্রার্থীকে অবহিত করবে।
  • ইউনেস্কো পুরস্কার বিজয়ী প্রতিটি প্রতিযোগীর দুজন প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানাবে। সাধারণত পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অক্টোবর বা নভেম্বরে প্যারিসে অনুষ্ঠিত হয়।
  • প্রতিটি বিজয়ী একটি পুরস্কার, একটি ডিপ্লোমা এবং ৫০,০০০ ইউএস ডলার পাবেন। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের ১ সপ্তাহের মধ্যেই তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে এই অর্থ স্থানান্তর করা হবে।
  • বিস্তারিত জানতে এই লিঙ্ক ভিজিট করুনঃ https://en.unesco.org/system/files/esd_prize_faq_2017_en.pdf

আবেদনের যোগ্যতা

আবেদনের যোগ্যতা জানতে এই লিঙ্ক ভিজিট করুনঃ

https://en.unesco.org/prize-esd/selection-criteria

যেসকল স্থানের প্রার্থীদের জন্য প্রযোজ্য

ইউএনের সকল সদস্য রাষ্ট্র।

আবেদন পদ্ধতি

ডাউনলোডক্রিত মনোনয়ন ফর্ম পূরণ করে সকল কাগজপত্রের ইলেকট্রনিক কপি এবং হার্ড কপি(২সেট) আগামী ৩১ মার্চ, ২০১৯ এর মধ্যে বাংলাদেশ ইউনেস্কো জাতীয় কমিশনে জমা দিতে হবে।

নিম্ন বর্ণিত কাগজপত্র জমা দিতে হবে-

  • ইংরেজি বা ফ্রেঞ্চ ভাষায় লিখিত সুপারিশ পত্র।
  • প্রার্থীর ব্যাকগ্রাউন্ড এবং অর্জনের বিবরণ দিতে হবে।
  • কাজের একটি সারসংক্ষেপ বা কাজের ফলাফল, প্রকাশনা এবং অন্যান্য কাজের গুরুত্বপূর্ণ নথি।
  • পুরস্কারের উদ্দেশ্য সম্পর্কে প্রার্থীর একটি লেখা।

আবেদনের শেষ তারিখ

মার্চ ৩১, ২০১৯ (৪ দিন বাকি)।

 

আবেদন করুন                অফিসিয়াল লিংক