বাংলাদেশের জন্যেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিলম্ব হচ্ছে : সু চি

প্রকাশিত: ১২:৪৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৪৭:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০১৮

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কবে শুরু হবে সেটি বাংলাদেশের ওপরই নির্ভর করছে বলে মন্তব্য করেছেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি।

মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরে এক অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন তিনি। চার দিনের সফরে সিঙ্গাপুরে রয়েছেন সু চি।

অং সান সু চি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের রাখাইন রাজ্যে ফিরিয়ে নেওয়ার সময়সীমা নির্ধারণ করা কঠিন। কারণ এ ক্ষেত্রে তারা যেখানে পালিয়ে গেছে, সেই বাংলাদেশের সহযোগিতা প্রয়োজন।’

এনডিটিভি জানায়, আইএসএএস- ইউসফ ইশক ইনস্টিটিউট আয়োজিত ‘মিয়ানমার্স ডেমোক্রেটিক ট্রানজিশন: চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড ওয়ে ফরোয়ার্ড’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সিঙ্গাপুরে গেছেন অং সান সু চি।

অনুষ্ঠানে সূ চি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর কাজটা বাংলাদেশের। আমরা কেবল তাদের স্বাগত জানাতে পারি।… আমার মনে হয় বাংলাদেশ কত দ্রুত প্রত্যাবাসন শেষ করতে চায় সে সিদ্ধান্ত তাদেরই নিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা দেশে ফিরলে তাদের কোথায় রাখা হবে সে জায়গাও ঠিক করা হয়েছে। তবে প্রত্যাবাসন শুরুর দিন তারিখ ঠিক করা মিয়ানমারের জন্য কঠিন, কারণ কাজটি করতে হবে বাংলাদেশের।

গত বছরের ২৪ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংস ঘটনার পর রোহিঙ্গারা দলে দলে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। শরণার্থী ত্রাণ ও পুনর্বাসন কমিশনের হিসাব অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ১০ লাখ ৯৫ হাজার রোহিঙ্গা নিবন্ধিত হয়েছে। উখিয়ার টেকনাফের ১১টি স্থানে ৩০টি শিবিরে তারা রয়েছে।

রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারকেও সই করেছে মিয়ানমার।