বাংলা গানের যুবরাজ আসিফের প্রিয়ার ২০তম জন্মদিন আজ

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৯:০৬:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০২০
ছবিঃ সংগৃহিত

আসিফ আকবরকে সকলেই ‘বাংলা গানের যুবরাজ’ হিসেবে অনেক আগেই গ্রহণ করে নিয়েছেন। ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’ তার প্রথম সংগীত অ্যালবাম প্রকাশিত হয় ২০০১ সালে। অ্যালবামের টাইটেল ট্র্যাকটি দিয়ে রাতারাতি পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা লাভ করেন তিনি।

অসংখ্য প্রেমিকের ব্যথায় জন্ম হয়েছিল নতুন এক প্রিয়ার। তারই জন্মদিন। ২০ বছর আগে আজকের দিনেই দিনেই প্রকাশ হয়েছিল আসিফ আকবরের ঐতিহাসিক অ্যালবাম ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’। অ্যালবামটির ২০তম জন্মদিনে প্রিয়াকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

জানা গেছে, ৬০ লাখেরও বেশি বিক্রি হয়েছিল অ্যালবামটি। ইন্ডাস্ট্রিতে যে রেকর্ড আর কখনো কোনদিন ভাঙ্গবেনা। আসিফ আকবর ইন্ডাস্ট্রিকে দেখিয়েছিলেন এক নতুন সম্ভাবনার স্বপ্ন। প্রায় একাই ইন্ডাস্ট্রিকে টেনেছেন এক দশকেরও বেশি সময়। এখনও সমান তালে গান গেয়ে চলেছেন বাংলা গানের যুবরাজ।

গানটির জনপ্রিয়তাকে মাথােয় রেখে চলচ্চিত্রও নির্মাণ করেছিলেন শাহাদাৎ হোসেন লিটন। সেই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন ঢাকাই ছবির তুমুল জনপ্রিয় জুটি রিয়াজ-শাবনূর। একটি বিশেষ চরিত্রে ছিলেন শাকিব খানও।

এই উপলক্ষে আসিফ তার ফেসবুকে পেজে একটা লেখা শেয়ার করেছেন। যেখানে লেখা, ‘২৯ শে জানুয়ারি, ২০০১ সাল। বিশ বছর আগে কথা, প্রথমে ঢাকার বাইরে এবং পরের দিন তা সারা দেশের প্রতিটি অলিগলি আর অডিও দোকানগুলোতে বেজে উঠেছিল ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’।

অ্যালবামটি সংগ্রহে রাখার জন্য তখন মানুষ একরকম হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল। এটি এমন একটি অ্যালবাম, যার প্রতিটি গান মানুষের মুখে মুখে ছিল। এখন পর্যন্ত দেশের অডিও ইন্ডাস্ট্রির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ও ব্যবসা সফল অ্যালবামটি ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’।

ও প্রিয়া তুমি কোথায় গানের দুই দশক পূর্তিতে গায়ক আসিফ বলেন, আজকের দিনটা অনেক আবেগের আমার কাছে। এই দিনে গায়ক হিসেবে আনুষ্ঠানিক যাত্রা করলাম। আমি ইথুন বাবু ভাই, সাউন্ডটেকের কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই।

আর আজকের দিনে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসা রইলো আমার গানের শ্রোতাদের প্রতি। তাদের জন্যই আজ আমি আসিফ আকবর হয়েছি। জগতের সকল প্রিয়ারা ভালো থাক, সুখে থাক।