বাকস্বাধীনতা নিয়ে দূতাবাসের ‘কুটিল বিবৃতি’ চাই না: জয়

প্রকাশিত: ৬:৩১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০২১ | আপডেট: ৬:৩১:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০২১
ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের বাক স্বাধীনতা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলোর কাছ থেকে আর ভণ্ডামিপূর্ণ বিবৃতি দেখতে চান না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

সজীব ওয়াজেদ জয় তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এক পোস্টে ‘টুইটার স্থায়ীভাবে ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করেছে’ সিএনএনের এমন সংবাদ শেয়ার করে ক্যাপশনে এমন মন্তব্য করেছেন।

ফেসবুক পোস্টে তিনি উল্লেখ করেন, ‘আমরা বাকস্বাধীনতায় বিশ্বাস করি। কিন্তু সেই স্বাধীনতা তখনই খর্ব হয়, যখন গুজব ছড়িয়ে অন্যকে কষ্ট দেওয়া হয়। অন্যকে কষ্ট দেওয়ার অধিকার কারও নেই। আমি চাই ঢাকায় নিয়োজিত মার্কিন দূতাবাসসহ অন্যান্য পশ্চিমা দেশের দূতাবাসগুলো যেন আমার এই বক্তব্য নোট করে রাখে। আমরা আপনাদের কাছে থেকে বাংলাদেশে বাকস্বাধীনতা নিয়ে কুটিল বিবৃতি (Hypocritical Statements) আর চাই না।’

আরও উল্লেখ করা হয়, ‘টুইটারসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রতি স্থায়ীভাবে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এছাড়া আরও কিছু সংগঠন এবং ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, যারা সহিংসতা তৈরিতে গুজব রটিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের বাকস্বাধীনতার সীমা এটি।

তিন আরও উল্লেখ করেন, ‘যারা বাংলাদেশের ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট নিয়ে অভিযোগ করেন, তারা জেনে থাকবেন যুক্তরাষ্ট্রে বেসরকারি কোম্পানিকে এসব নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তবে আমরা বিশ্বাস করি, বাংলাদেশে এমনটি হওয়া উচিত নয়। এটি আদালতের সিদ্ধান্তে হওয়া উচিত।’