বাগেরহাটে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৮৯ জন করোনায় আক্রান্ত, জেলায় সংক্রমণেরহার ৫০ শতাংশ

প্রকাশিত: ৯:২৩ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২১ | আপডেট: ৯:২৩:অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২১

বাগেরহাটে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। নতুন করে জেলার ফকিরহাট উপজেলায় একদিনে সংক্রমণেরহার ৬৫ শতাংশ। সেখানে গত ২৪ ঘন্টায় ২৩টি নমুনা পরীক্ষায় ১৫ জনের পজেটিভ এসেছে। বাগেরহাটে গত ২৪ ঘন্টার নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরও ৮৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

১৭৯টি নমুনা পরীক্ষায় ৮৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়। জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় সংক্রমণের হার প্রায় ৫০ শতাংশ। জেলার সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা মোংলা উপজেলাতে ২০টি নমুনা পরীক্ষায় ১০ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে। সেখানে সংক্রমণেরহার ৫০ শতাংশ। যা গত ২৪ ঘন্টার তুলনায় ৪ শতাংশ বেশি। (বৃহষ্পতিবার ভোর ছয়টা থেকে শুক্রবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত)।

এই নিয়ে বাগেরহাট জেলায় করোনা ভাইরাসে সংক্রমণে প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাাঁড়াল দুই হাজার ৪৭৬জন। এরমধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন এক হাজার ৬৫০ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৩ জন বলে জানিয়েছে জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয়।

এদিকে, জেলার সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকা মোংলা উপজেলায় তৃতীয় দফায় বাড়ানো সাতদিনের কঠোর বিধি ঢিমেঢালাভাবে চলছে। কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে সাধারণ মানুষের চলাফেরা বেড়েছে। জনসমাগমের উৎসস্থল হাটবাজারে মানুষের উপচে পড়া ভিড়। প্রশাসনের আরোপ করা কঠোর বিধিনিষেধ কেউ মানছেন না। নৌকাতে গাদাগাদি করে যাত্রী পারাপার চলছে। ফলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ছে। প্রশাসনের আরোপিত কঠোর বিধিনিষেধ আগামী ২৩ জুন পর্যন্ত চলবে বলে জানিয়েছেন মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির বলেন, বাগেরহাটে দ্বিতীয় ঢেউয়ে গত মার্চ মাস থেকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। চিকিৎসার জন্য ৫০ শয্যার একটি করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা আছে। সেখানে সেন্ট্রাল অক্সিজেনের পর্যাপ্ত সরবরাহ রাখা হয়েছে। জেলার সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে মোংলা। সেখানে প্রতিদিন সংক্রমিত রোগী বাড়ছে। নমুনা পরীক্ষায় সংক্রমণেরহার ৬০ থেকে ৭০ শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করছে। যা উদ্বেগজনক। এছাড়া মোংলার সীমান্তবর্তি শরণখোলা ও মোরেলগঞ্জ উপজেলা দুটি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় জেলার ফকিরহাট উপজেলায় সংক্রমণেরহার ৬৫ শতাংশ। এসব এলাকায় যাতে সংক্রমণের বিস্তার লাভ না করতে পারে সেখানে প্রশাসন ব্যবস্থা নিয়েছে। করোনার সংক্রমণরোধে আমাদের যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথা তা কেউ মানছে না।

তিনি আরও বলেন, নতুন করে জেলার ফকিরহাট উপজেলায় একদিনে সংক্রমণেরহার ৬৫ শতাংশ। সেখানে গত ২৪ ঘন্টায় ২৩টি নমুনা পরীক্ষায় ১৫ জনের পজেটিভ এসেছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সংগ্রহ করা ১৭৯টি নমুনা পরীক্ষায় আরও ৮৯ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় সংক্রমণেরহার ৫০ শতাংশ। সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা মোংলা উপজেলাতে গত ২৪ ঘন্টার নমুনা পরীক্ষায় ২০টির মধ্যে ১০টি পজেটিভ এসেছে। মোংলায় সংক্রমণেরহার ৫০ শতাংশ। যা গতদিনের তুলনায় ৪ শতাংশ বেশি।