বাড়ি ভাড়া বাড়তে না দেয়ার আইন অবৈধ : জার্মানির আদালত

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৫৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০২১ | আপডেট: ৮:৫৪:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০২১

বার্লিন রাজ্য প্রশাসন গতবছর জানুয়ারিতে পাঁচ বছরের জন্য বাড়ি ভাড়া বাড়ানোর উপর যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল, তা অবৈধ বলে জানিয়েছে জার্মানির আদালত।

গত বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) এক আদেশে একথা জানায় জার্মানির সাংবিধানিক আদালত।

ডয়চে ভেলের প্রকাশিত খবরে জানা যায়, বার্লিনের ঐ সিদ্ধান্তের কারণে প্রায় ১৫ লাখ অ্যাপার্টমেন্টের ভাড়া ২০১৯ সালের জুন মাসে যা ছিল, আগামী পাঁচ বছর তাই রাখতে হতো। সিদ্ধান্তটি ২০২০ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছিল। এরপর নভেম্বরে ঐ সিদ্ধান্তের দ্বিতীয় পর্যায়টি কার্যকর হয়। ফলে তিন লাখের বেশি ভাড়াটিয়ার বাড়িভাড়া কমাতে বাধ্য হন বাড়ির মালিকরা।

বার্লিনের সিদ্ধান্ত অবৈধ বলার কারণ হিসেবে সাংবিধানিক আদালত কেন্দ্রীয় সরকারের এ সংক্রান্ত আইন থাকার কথা উল্লেখ করেছে। কেন্দ্রীয় সরকার ২০১৫ সালে একটি আইন করেছিল।

এতে বলা হয়, বিভিন্ন এলাকায় স্থানীয়ভাবে বাড়ি ভাড়ার যে মাত্রা নির্ধারিত আছে, বাড়িওয়ালারা তার চেয়ে সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ পর্যন্ত ভাড়া বাড়াতে পারবেন, তার বেশি নয়।

সাংবিধানিক আদালত বলছে, এই আইন যেহেতু সব এলাকার জন্য প্রযোজ্য, তাই বার্লিন রাজ্য প্রশাসন আলাদা করে আইন করতে পারেনা।

বার্লিনের ভাড়াটিয়া এসোসিয়েশন সাংবিধানিক আদালতের রায়কে ভাড়াটিয়াদের ‘মুখে চড় মারা’ বলে মন্তব্য করেছে।

রাজনীতি

বার্লিন রাজ্য প্রশাসনে এখন ক্ষমতায় আছে এসপিডি (চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের জোট সরকারের অংশ), সবুজ ও বাম দলের জোট। বাড়ি ভাড়ার উপর ব্রেক কষার বিষয়টি ঐ সরকার তাদের উল্লেখযোগ্য সাফল্য হিসেবে দেখত।

কিন্তু বার্লিন সংসদে বিরোধী অবস্থানে থাকা সিডিইউ (ম্যার্কেলের দল) ও ব্যবসা বান্ধব এফডিপি দল এই আইনের বিরুদ্ধে সাংবিধানিক আদালতে অভিযোগ করেছিল। তার প্রেক্ষিতেই বৃহস্পতিবার রায় দেন আদালত।