বাবরকে ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন এনামুল হক বিজয়!

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৬, ২০২১ | আপডেট: ১২:১৮:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৬, ২০২১

ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে টপকে বুধবার আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করেছেন পাকিস্তানের বাবর আজম। সর্বশেষ প্রকাশিত আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে কোহলির রেটিং পয়েন্ট ৮৫৭, অন্যদিকে বাবর আজমের রেটিং পয়েন্ট ৮৬৫।

শীর্ষ স্থান দখলের লড়াইয়ে এখন বিরাট কোহলি ও বাবর আজম। ২০০৮ সালে অনূর্ধ্ব -১৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কোহলির ক্যারিয়ারটা বাবরের ক্যারিয়ারের চেয়ে লম্বা।

বাবর বন্দনায় যখন ব্যস্ত গোটা ক্রিকেটবিশ্ব, তখন যে তথ্যটি সামনে এলো তা হলো— কোনো একসময় এই বাবর আজমকে ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়।

বাবর অনূর্ধ্ব – ১৯ বিশ্বকাপ খেলেছিলেন ২০১২ সালে। সে বিশ্বকাপে বাবরকে ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়। সমানসংখ্যক ম্যাচ খেলে বাবরের চেয়ে ৭৮ রান বেশি করে বিজয় হয়েছিলেন বিশ্বকাপের সেরা রানসংগ্রাহক।

৬ ম্যাচে ৬০.৮৩ গড়ে বিজয় করেছিলেন ৩৬৫ রান। তার স্ট্রাইকরেট ছিল ৮৫.০৮। ১২৮ রানের একটি ইনিংসও খেলেছিলেন তিনি। অন্যদিকে, রান তালিকায় দুইয়ে থাকা বাবরের সংগ্রহ ছিল ২৮৭ রান। তার গড় ছিল ৫৭.৪০ ও স্ট্রাইক রেট ছিল মাত্র ৬৫.৫২।

বাবরকে পেছনে ফেলা বিজয় এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে বহুদিন। তার জাতীয় দলে ফেরা নিয়েই সংশয় রয়েছে।

অন্যদিকে বাবর এখন পাকিস্তানের কাণ্ডারি। তিন ফরম্যাটেরই অধিনায়ক। ওয়ানডেতে বিশ্বের এক নম্বর ব্যাটসম্যান তিনি। টেস্টে সেরা ছয় থেকে এক নম্বর হতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ তিনি। টি-টোয়েন্টিতে বাবরের অবস্থান তৃতীয়।

বিজয় থেকে যোজন-যোজন দূরে এগিয়ে গেছেন বাবর। বাবর যখন সুপারস্টারে পরিণত, তখন বাংলাদেশের বিজয়ের নামই ভুলতে বসেছেন অনেকে।

অথচ ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে বাবরের চেয়ে বিজয়কেই বেশি প্রতিভাবান মনে করা হতো।