বাবা-মা’র মামলায় ছেলের ৪ বছরের জেল

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:০১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৮ | আপডেট: ৮:০১:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৮

ভারতের গুজরাটে বাবা-মায়ের ভরণপোষণ না দেওয়ায় এক ছেলেকে ৪ বছরের জেল দিয়েছে আদালত। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইকোনমিক টাইমসে বলা হয়েছে, ওই রাজ্যের আহমেদাবাদের রেনছোতভাই সোলাঙ্কি (৬৮) ও তার স্ত্রী জসমতি সোলাঙ্কি ২০১৩ সালে তাদের দুই ছেলে কান্তিভাই সোলাঙ্কি ও দয়াভাই সোলাঙ্কির বিরুদ্ধে ভোরণপোষণ না দেওয়া অভিযোগ এনে আদালতে মামলা করেন।

মামলায় বলা হয়, দুই সন্তানের কেউ-ই তাদের খোঁজখবর নেয় না, খাবার দেয় না, কোনো অর্থ দেয় না। টাকার অভাবে তারা নিজেদের চিকিৎসা পর্যন্ত করাতে পারছেন না।

ওই দুই সন্তানের মধ্যে কান্তিভাই বাবা-মা’র সঙ্গে একই বাড়িতে থাকেন তার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে। অন্য সন্তান দয়াভাই আলাদা থাকেন।

২০১৫ সালে আদালত মামলার রায়ে ওই দুই সন্তানকে প্রতিমাসে ১৮শ রুপি করে ভরণপোষণ দেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে দয়াভাই নিয়মিত ভরণপোষণ দেওয়া শুরু করলেও তার ভাই কান্তিভাই এক মাসের জন্যেও বাবা-মায়ের ভরণপোষণ দেয়নি। এ অবস্থায় অসহায় দম্পতি ফের আদালতের শরনাপন্ন হন।

কান্তিভাইয়ের কাছে ভরণপোষণ বাবদ ওই দম্পতির পাওনা প্রায় ৪৯ হাজার টাকা।

শুনানীর সময় কান্তিভাই বলেন, তার কাছে কোনো টাকা নেই। তাই তিনি ভরণপোষণ দিতে পারছেন না।

আদালত তার বক্তব্যে সন্তুষ্ট হয়নি। আদালতের নির্দেশনা মেনে বাবা-মাকে বরণপোষণ না দেওয়ার অপরাধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৫ (৩) ধারা অনুসারে তাকে ১৫৪৫ দিনের জেল দেওয়া হয়।