‘বায়োটেক প্লাজমা প্রযুক্তি’র যুগে প্রবেশ করলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ৮:৫০ অপরাহ্ণ, মার্চ ১, ২০২১ | আপডেট: ৮:৫০:অপরাহ্ণ, মার্চ ১, ২০২১

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক অরিক্সের বায়োটেক প্লান্ট স্থাপন একটি সময়োপযোগী পদক্ষেপ উল্লেখ করে বলেন এর মাধ্যমে বাংলাদেশ বায়োটেক প্লাজমা প্রযুক্তির যুগে প্রবেশ করল এবং রক্তের প্লাজমা বিশ্লেষণ করে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ প্রস্তুত করার পথও সুগম হলো।

প্রতিমন্ত্রী সোমবার গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কে চায়না ভিত্তিক বহুজাতিক কোম্পানী “অরিক্স বায়োটেক প্লাজমা ফ্রাকশানেশন প্লান্ট” এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চায়না ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান অরিক্স বায়োটেক এ খাতে ৩শ’ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ব্যাকগ্রাউন্ডের প্রায় দুই হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে এবং এ খাত সংশ্লিষ্ট এক হাজার কোটি টাকার আমদানি বন্ধ হবে।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের প্লাটফর্ম ব্যবহার এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণেই করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সফল হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী করোনা মহামারি মোকাবেলায় প্রয়োজনে লকডাউন দিয়ে ও তুলে নিয়ে জীবন ও জীবিকা দুটোই সমন্বয় করেছেন। সুরক্ষা ম্যানেজমেন্ট ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে।

তিনি বায়োটেকনোলজির সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জ্ঞানভিত্তিক ও তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গঠনে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, সামিট গ্রুপের অরিক্স বায়োটেক লিমিটেডের চেয়ারম্যানট কাজী শাকিল,চায়না অরিক্স বায়োটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডেভিড বো, বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের কর্মাশিয়াল কাউন্সিলর লিউ জিনহূয়া।