বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে পুলিশের বাধা, বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের হামলা-ভাঙচুর

প্রকাশিত: ৪:২৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯ | আপডেট: ৪:২৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা: রবিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা পৌর শহরের হারুন পার্কে জড়ো হয়ে মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়।

এসময় পুলিশের সাথে বিএনপি নেতাকর্মীদের ধস্তাধস্তি হয় এবং পুলিশ বিএনপির ব্যানার ছিনিয়ে নেয়। পরে বিক্ষুব্ধ বিএনপি নেতা-কর্মীদের একটি অংশ পৌর শহরের উত্তর বাজার এলাকায় হামলা চালিয়ে দুইটি কার্ভাড ভ্যান ও দুইটি ইজিবাইক ভাঙচুর করে।
পরে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সন্ত্রাস ও গাড়ি ভাঙচুরের প্রতিবাদে উপজেলা ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল করে।

কাভার্ড ভ্যান চালক আলী হোসেন জানান, গাজীপুর থেকে কোমলপানীয় সেভেন আপ ডেলিভারী দিতে ২টি কাভার্ড ভ্যান নিয়ে গৌরীপুর আসেন। মাল নামানোর সময় কিছু লোকজন অতর্কিতে গাড়িতে হামলা চালিয়ে তাদের ২টি গাড়ির গ্লাস ভেঙে ফেলে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ময়মনসিংহ উত্তর জেলা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মাহফুজুর রহমান বলেন, মৌখিক অনুমতি নিয়ে আমরা বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের জন্য শহীদ হারুন পার্ক এলাকায় জড়ো হই। কিন্তু পুলিশ বাধা দিয়ে আমাদের কর্মসূচি পÐ করে দেয়। আর আমাদের নেতা-কর্মীরা গাড়ি ভাঙচুর করেনি।

এদিকে বিএনপি নেতা-কর্মীদের গাড়ি ভাঙচুরের প্রতিবাদ জানিয়ে উপজেলা ও পৌর শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আল মুক্তাদির শাহীন বলেন, বিএনপি নেতা-কর্মীরা গাড়ি ভাঙচুর ও জনগণের জানমালের ক্ষতি করার প্রতিবাদে আমার বিক্ষোভ মিছিল করেছি। বিএনপির যেকোনো নাশকতামূলক কর্মকাÐ প্রতিরোধে ছাত্রলীগ সবসময় জনগণের পাশে থাকবে।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম মিয়া বলেন, বিশৃঙ্খলা এড়াতে ও জননিরাপত্তার স্বার্থে বিএনপির লোকজনকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়। আর গাড়ি ভাঙচুরের কোনো অভিযোগ এখনো থানায় আসেনি।