বিছনাকান্দিতে পরিচ্ছন্নতা অভিযানে দেওয়ান সৈয়দ আব্দুল বাছিত ফাউন্ডেশন

প্রকাশিত: ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৫৩:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

বিছনাকান্দি থেকে ফিরে: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার রুস্তমপুর ইউনিয়নে অবস্থিত ‘বিছনাকান্দি’। এটি জাফলং এর মতোই একটি পাথর কোয়ারী। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে মেঘালয় পাহাড়ের অনেকগুলো ধাপ দুই পাশ থেকে এক বিন্দুতে এসে মিলেছে। পাহাড়ের খাঁজে রয়েছে সুউচ্চ ঝর্ণা।

ভ্রমণবিলাসীদের জন্য এই স্পটের মূল আকর্ষণ হলো পাথরের উপর দিয়ে বয়ে চলা পানিপ্রবাহ। তাছাড়া বর্ষায় থোকা থোকা মেঘ আটকে থাকে পাহাড়ের গায়ে, মনে হতে পারে মেঘেরা পাহাড়ের কোলে বাসা বেঁধেছে। পূর্ব দিক থেকে পিয়াইন নদীর একটি শাখা পাহাড়ের নীচ দিয়ে চলে গেছে ভোলাগঞ্জের দিকে। সব মিলিয়ে পাহাড়, নদী, ঝর্ণা আর পাথরের এক সম্মিলিত ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি এই বিছনাকান্দি। পরিবেশ রক্ষায় বিছনাকান্দি বিরাট ভূমিকা পালন করছে।

এখানে পুরো বছরজুড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে থেকে পর্যটকদের আগমণ হচ্ছে। পর্যটকদের পদভারে এ স্থানটি মুখর। তাই এখানে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন দোকানপাট।
লোকজন এসে ভ্রমণকালে বিভিন্ন ধরণের খাবার খেয়ে থাকেন। এসব খাবারের মোড়ক যতত্রতভাবে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। এতে করে সুন্দর এ স্থানটির পরিবেশ হুমকীর মুখে দাঁড়াচ্ছে।

বিষয়টি নজরে আসে হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের কোর্টআন্দর গ্রামে প্রতিষ্ঠিত দেওয়ান সৈয়দ আব্দুল বাছিত ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মওদুদ আহমেদের। লন্ডনে অবস্থান করা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দেওয়ান সৈয়দ রব মুর্শেদের পরামর্শে বিছনাকান্দিতে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

তাই গাড়ী ভাড়া করে ৩ নভেম্বর রবিবার সকাল বেলা বিছনাকান্দির উদ্দেশ্যে রওনা হন সৈয়দ আব্দুল বাছিত ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মওদুদ আহমেদ।

সাথে ছিলেন- ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা মন্ডলীর সভাপতি সৈয়দ মাহমুদ জামিল, সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল আমিন শাহজাহান, সহ-সভাপতি মোঃ মামুন চৌধুরী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মিজান মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম, অর্থ-সম্পাদক দেওয়ান সৈয়দ অনিক ইসলাম রিপন, যুগ্ম-সাংগঠনিক সম্পাদক শিপন মিয়া, প্রচার-সম্পাদক শাহ আহমেদ রাজু, গীতিকার গোলাম মোস্তফা শৈবাল, যুগ্ম-প্রচার সম্পাদক মোঃ পাভেল।
ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মওদুদ আহমেদ বলেন, হতদরিদ্রদের পাশে আছে এ ফাউন্ডেশন। সবার সার্বিক সহযোগীতায় সমাজসেবামূলক কাজে এ ফাউন্ডেশন দিন দিন এগিয়ে চলেছে। তার সাথে পরিবেশ রক্ষায়ও কাজ করছে। এর অংশ সিসেবে বিছনাকান্দিতে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হলো। এ ধরণের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

এ অভিযান পরিচালনাকালে বিছনাকান্দি পর্যটন স্পট এলাকা থেকে কুড়িয়ে কুড়িয়ে খাবারের মোড়কগুলো সংগ্রহ করেন ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দরা। ডাস্টবিন না থাকায় ময়লাগুলো আগুন দিয়ে পুড়িয়ে নষ্ট করা হয়।

এ সময় নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা ফেলার জন্য পর্যটক ও দোকান মালিকদের প্রতি আহবান জানান ফাউন্ডেশন নেতৃবৃন্দ। ফাউন্ডেশন নেতৃবৃন্দ এ কার্যক্রম শেষ করে রওনা দিয়ে বাড়ি ফিরতে রাত হয়।