বিল গেটস-মেলিন্ডার বিচ্ছেদে দায়ী চীনা সুন্দরী!

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:০৯ অপরাহ্ণ, মে ৬, ২০২১ | আপডেট: ৫:০৯:অপরাহ্ণ, মে ৬, ২০২১

সাত বছর প্রেম করার পর গাঁটছড়া বাঁধেন। এরপর কেটে গেছে একে একে ২৭ বছর। এই দীর্ঘ সময় সংসারের পর এখন তা ভেঙে ফেলার ঘোষণা দিয়ে বিশ্বে মানুষজনকে অবাক করে দিয়েছেন বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস। তাদের এই সংসার ভাঙার পেছনে একজন অনুবাদকের নাম শোনা যাচ্ছে।

ওই নারীকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়া গুজবও ছড়িয়ে পড়েছে। তবে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনে কাজ করা ওই নারী এই গুজব মিথ্যা বলে তা প্রত্যাখ্যান করেন। ওই নারীর নাম ‘ঝে শেলি’ ওয়াং। তিনি ২০১৫ সাল থেকে এই ফাউন্ডেশনে কাজ করছেন।

শেলি বলেছেন, বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস দম্পতির সঙ্গে আমার পেশাদারিত্বের সম্পর্ক।

নিউইয়র্ক পোস্টের খবরে বলা হয়, ২০১৫ সাল থেকে বিলের ওই ফাউন্ডেশনে অনুবাদক হিসেবে কাজ করছেন ৩৬ বছর বয়সী শেলি। বিল-মেলিন্ডা দম্পতির বিচ্ছেদের ঘোষণার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিল গেটস ও তাকে জড়িয়ে নানা গুজব ছড়াতে থাকে। বিল গেটসের সঙ্গে তার অন্তরঙ্গতা বিচ্ছেদকে ত্বরান্বিত করেছে বলেও অভিযোগ করেন অনেকে।

পরে এ নিয়ে মুখ খোলেন শেলি। চাইনিজ সোশ্যাল মিডিয়া উইবো-তে এক স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, আমি মনে করেছিলেন, গুজবটি এমনিতেই চলে যাবে। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তা ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে।

তিনি এসব ভিত্তিহীন গুজবে সময় ব্যয় করেন না বলেও জানান।

শেলি তার স্ট্যাটাসের শেষে ‘গেটস বিবাহবিচ্ছেদ, একজন নির্দোষ চীনা মেয়ের বদনাম করতে কিছু দুশ্চরিত্র মানুষ গুজব ছড়াচ্ছে’ শিরোনামের একটি গল্পের লিঙ্কও জুড়ে দেন।

প্রসঙ্গত সাত বছর প্রেমের সম্পর্ক থেকে বিয়ে করেছিলেন বিল গেটস ও মেলিন্ডা। সম্প্রতি দীর্ঘ ২৭ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি টানার ঘোষণা দেন।