বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে ছিটকে গেল ইংল্যান্ড

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৩২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১ | আপডেট: ২:৩২:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১

লর্ডসে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলা হচ্ছে না ইংল্যান্ডের। ভারতের কাছে মোতেরায় দিন-রাতের টেস্টে জো রুটরা ১০ উইকেটে হারায় তাঁরা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে ছিটকে গেলেন। বিরাট কোহালির ভারত পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে চলে গেল।

মোট পয়েন্ট ও শতাংশের বিচারে দুটিতেই ভারত শীর্ষে। নিউজিল্যান্ড ইতোমধ্যেই ফাইনালে চলে গিয়েছে।

চার ম্যাচ সিরিজের প্রথমটি জিতে সেই মিশনে দারুণ সূচনা করেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু পরের দুই ম্যাচ হেরে এখন ফাইনালে ওঠার দৌড় থেকে বাদ পড়ে গেছে ইংলিশরা। শেষ ম্যাচ জিতলেও তাদের সামনে থাকছে না ফাইনাল খেলার সুযোগ। তবে ইংল্যান্ড জিতলে আবার হাসি ফুটবে অস্ট্রেলিয়ানদের মুখে, কপাল পুড়বে ভারতীয়দের।

আহমেদাবাদে মাত্র ২ দিনে শেষ হয়ে যাওয়া ম্যাচের পর বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের সমীকরণটা দাঁড়িয়েছে এমনই। এখন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফাইনাল খেলার জন্য লড়াইয়ে টিকে রয়েছে কেবল ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। তবে ভারতের ভাগ্য তাদের নিজেদের হাতে থাকলেও, অস্ট্রেলিয়া তাকিয়ে থাকবে ইংল্যান্ডের দিকে।

তৃতীয় ম্যাচের পর ৭১.০১ শতাংশ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে উঠে গেছে ভারত। দুই নম্বরে রয়েছে ৭০ শতাংশ পয়েন্ট পেয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলা নিউজিল্যান্ড। রেস থেকে বাদ পড়ে যাওয়া ইংল্যান্ড পেয়েছে ৬৪.০৬ শতাংশ পয়েন্ট আর আশা বেঁচে থাকা অস্ট্রেলিয়ার নামের পাশে রয়েছে ৬৯.১৭ শতাংশ পয়েন্ট।

এখন ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার শেষ ম্যাচে যদি ইংল্যান্ড জয় পায় তাহলে ৬৯.১৭ পয়েন্ট নিয়েই ফাইনালে উঠে যাবে অস্ট্রেলিয়া, তৃতীয় স্থানে থেকে থামতে হবে ভারতকে। তবে স্বাগতিক ভারতের অবশ্য চিন্তার কারণ কমই। তারা ড্র করলেই পাবে ফাইনালের টিকিট আর জিতে গেলে শীর্ষে থেকেই লর্ডসে নামবে তারা।

অস্ট্রেলিয়ার এমন পরিণতির কারণ তারা নিজেরাই। ভারতের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সবশেষ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে স্লো ওভার রেটের কারণে ৪টি মূল্যবান পয়েন্ট হারিয়েছে অসিরা। যে কারণে তাদের পয়েন্টের হার কমে দাঁড়িয়েছে ৬৯.১৭। অন্যথায় তাদেরও থাকত নিউজিল্যান্ডের সমান ৭০ শতাংশ পয়েন্ট।

আর দুই দল তথা নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার পয়েন্টের হার সমান হলে তখন হিসেব করা হতো ‘রানস পার উইকেট রেশিও’; অর্থাৎ প্রতি উইকেটে করা রান ও প্রতি উইকেট নিতে খরচ করা রানের অনুপাত। এই বিবেচনায় নিউজিল্যান্ডের (১.২৮) চেয়ে এগিয়েই রয়েছে অস্ট্রেলিয়া (১.৩৯)। কিন্তু পয়েন্ট কাঁটা যাওয়ায় আর এটি হিসেব করা হবে না। ফলে তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে ইংল্যান্ডের দিকেই।