বিসিসিআইয়ের মতো ভুল করবে না বিসিবি

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:৩৭ অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০২১ | আপডেট: ৭:৩৭:অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০২১

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রাথমিক দলের ১৩ জন সদস্য। শ্রীলঙ্কা থেকে ফিরে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকায় এখনো অনুশীলনে ফিরতে পারেননি তামিম-মুশফিকসহ ৮জন।

চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঐ ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানালেন, করোনা ইস্যুতে বাড়তি সতর্ক থাকবেন তারা।

করোনাকে পাশ কাটিয়ে গত ৯ এপ্রিল শুরু হয়েছিল আইপিএলের ১৪তম আসর। তবে বোর্ড ফর ক্রিকেট কন্ট্রোল অব ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) অসতর্কতায় হঠাৎ কোটি টাকার আসরে করোনা হানা দেয়। একের পর এক খেলোয়াড় ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হওয়ায় শেষ পর্যন্ত আইপিএল স্থগিত করে দেওয়া হয়। যেটা এখন অন্যান্য দেশের জন্য শিক্ষণীয় বিষয়।

গণমাধ্যমকে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক বলেন, ‘আমরা শুনেছি, ভারতে এবার হোটেল কর্মকর্তা এবং গ্রাউন্ডসম্যানরা আইসোলেশনে ছিলেন না। আবার দুই-তিনটি শহরে ম্যাচগুলো আয়োজন করা হয়েছে। তারা বিশেষ বিমানে আসা-যাওয়া করলেও চলাফেরার জায়গা উন্মুক্ত। কোভিড সংক্রমণের জন্য এসব জায়গা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ।’

দেবাশীষ জানালেন, সিরিজ শুরুর এক সপ্তাহ আগেই হোটেল কর্মকর্তা এবং গ্রাউন্ডসম্যানদের আইসোলেশেনে পাঠাবে বিসিবি। দুই দলের জন্য হোটেলের তিনটি ফ্লোর পুরোপুরি আলাদা করে রাখা হচ্ছে। পাশাপাশি নিয়মিত সবার কোভিড পরীক্ষাও করানো হবে।

দেবাশীষ বলেন, ‘আমরা সব সময় হোটেল কর্মকর্তাদের আইসোলেশনে রাখি। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল ঢাকা আসার সাতদিন আগে তারা আইসোলেশনে চলে যাবেন। তাদের ঈদের ছুটিও বাতিল করা হয়েছে। আবার গ্রাউন্ডসম্যানদের জন্যও আমরা আইসোলেশনের ব্যবস্থা করেছি।’

‘বাংলাদেশ একমাত্র দেশ যারা গ্রাউন্ডসম্যানদেরও আইসোলেশনে রাখে। অন্যান্যরা গ্রাউন্ডসম্যানদের খেলোয়াড়দের থেকে নির্দিষ্ট দূরত্বে থাকতে বলে। এছাড়া আমাদের জন্য আশার খবর হচ্ছে, একটা ভেন্যুতেই ম্যাচগুলো আয়োজন করবো। এজন্য অনেক কিছুই সহজ হবে।’ যোগ করেন দেবাশীষ।