বিয়ের কার্ডে টয়লেটের ছবি ছাপালেন তরুণী!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:০৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৮ | আপডেট: ৬:০৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৮

ভারতে বাড়িতে টয়লেট না থাকায় বিয়ে ভাঙার খবর নতুন নয়। কিন্তু বিয়ের কার্ডে টয়লেটের ছবি ছাপানোর ঘটনা হয়তো অনেকেই শোনেননি। অদ্ভুত মনে হলেও এমনটাই ঘটেছে দেশটির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুর্শিদাবাদের একঘরিয়া গ্রামে।

পশ্চিমবঙ্গভিত্তিক দৈনিক আনন্দবাজারের খবরে জানানো হয়, একঘরিয়া গ্রামের তরুণী সামসাল বেগমের বিয়ে ৩০ আগস্ট। সেই বিয়ের কথাবার্তা যখন একেবারে পাকা, তখন সামসাল আবদার করে বলেন, ‘বিয়ের কার্ডে শৌচাগারের ছবি থাকতে হবে।’ সেই আবদার শুনে চক্ষু চড়কগাছ হয়ে যায় পাত্রপক্ষের। কিন্তু নাছোড়বান্দা ছিলেন সামসাল।

ওই তরুণী পাত্রপক্ষকে বোঝাতে সক্ষম হন, বাড়িতে টয়লেট না থাকা মেয়েদের জন্য খুবই অসম্মানের। বিয়ের কার্ডে টয়লেটের ছবি থাকলে যাদের বাড়িতে এ কার্ড যাবে, তারা সচেতন হবেন।

সামসালের এমন যুক্তি ফেলে দিতে পারেনি পাত্রপক্ষ। তারা এতে রাজি হয়ে যান। তরুণীর কথামতো বিয়ের কার্ডে ছাপানো হয় টয়লেটের ছবি। আর পাশে লেখা হয় ‘ইজ্জত ঘর’।

এ বিষয়ে সামসাল বেগম বলেন, ‘কার্ডে টয়লেটের ছবির উপরে “ইজ্জত ঘর” কথাটা লিখতে বলেছি, যাতে বোঝা যায় টয়লেট না থাকাটা কতটা অসম্মানের।’

হবু স্ত্রীর এই তৎপরতায় ছেলে তাউসেফ রেজাও খুশি। তিনি কৌতুক করে বলেন, ‘ভাগ্যিস আমার বাড়িতে টয়লেট আছে।’

এ বিষয়ে মুর্শিদাবাদের জেলাশাসক পি উলাগানাথন বলেন, ‘ওই তরুণী দীর্ঘদিন ধরেই এলাকার লোকজনকে এ বিষয়ে সচেতন করছেন। তবে নিজের বিয়ের নিমন্ত্রণপত্রেও টয়লেটের ছবি ছাপিয়ে যেভাবে লোকজনকে সচেতন করছেন, তা এই জেলায় একটা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকল।’