বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের ফ্লেক্সিলোডের দোকানে প্রেমিকার অনশন, অতঃপর…

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৫৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ | আপডেট: ১১:৫৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

টিবিটি দেশজুড়েঃ নাটোরের লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া ইউপির বড়ময়না গ্রামের মজিবুর রহমানের মেয়ে রিমা খাতুন নামের এক প্রেমিকা বিয়ের দাবিতে প্রেমিক মাসুদের ওয়ালিয়া বাজারে ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান ফ্লেক্সিলোডের দোকানে অনশন করেছে।

প্রেমিক মাসুদ একই ইউনিয়নের হাগড়াগাড়ি গ্রামের আনিস বিশ্বাসের ছেলে ও তার ঘরে অন্তঃসস্তা স্ত্রী রয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর ) দুপুর থেকে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ধ্যা পর্যন্ত অনশন করে প্রেমিকা পরে রাতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমিক মাসুদের সঙ্গে গত ৩ বছর যাবৎ তাদের প্রেমের সম্পর্ক সৃষ্টি হয়। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এর মধ্যে বেশ কয়েক বার তাদের দেখাও হয়েছে। হঠাৎ গত কাল মেয়ের বাসা থেকে বিয়ের চাপ দিলে প্রেমিকা বিয়ের দাবিতে প্রেমিক মাসুদের দোকানে হাজির হয়। এ সময় মাসুদ দোকন থেকে পালিয়ে যায়।

পরে অবস্থা বেগতিক দেখে স্থানীয় ওয়ালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমানের নিকটে গেলে সন্ধ্যায় ছেলে ও মেয়ে দুই পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় নেতৃবর্গ কে নিয়ে ওয়ালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে এক মিটিং করেন চেয়ারম্যান।

এতে দুই পক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ছেলেও মেয়ের বিয়ের সিদ্ধান্ত দেন ইউপি চেয়ারম্যান ও নেতৃবর্গ। পরে রাত ১২টার দিকে স্থানীয় আ.লীগ নেতা শাকিবের বাড়িতে এই প্রেমিক ও প্রেমিকার বিয়ে সম্পন্ন হয়।

এ ব্যাপারে ওয়ালিয়া ইউপির চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আমার সংবাদ কে বলেন, ছেলে-মেয়ে ও তাদের পরিবার ও মিটিংয়ে সকলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাদের বিয়ে দেয়ার জন্য দুই পরিবার কে বলা হয়েছে এবং রাতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান তিনি।