ব্যাটারি রিপ্লেসমেন্ট প্রোগ্রাম চালু করছে শাওমি!

প্রকাশিত: ৯:৩১ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৯:৩১:অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

একটা সময় ছিল যখন ফোনের ব্যাটারি খারাপ হয়ে গেলে আমরা নিজ থেকেই বদলাতে পারতাম বাজার থেকে কিনে।এখন স্মার্টফোনগুলোতে ব্যবহার করা হয় ননরিমুভেবল ব্যাটারি। যা হুটহাট খুলে বদলানো যায় না।

কিন্তু দেখা যায়, একটা সময় ব্যাটারির স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যায়, তখন এটি বদলানোর প্রয়োজন পড়ে। অরিজিনাল ব্যাটারির দাম বেশি হওয়ায় তা অনেকেই করতে চান না।

কিছু ব্র্যান্ড সেই দিককে নজরে এনে ব্যাটারি রিপ্লেসমেন্ট প্রোগ্রাম বা স্বল্পমূল্যে ব্যাটারি বদলের সেবা দেয়। এবার চীনা স্মার্টফোন ব্র্যান্ড শাওমি এমসনই প্রোগ্রাম চালু করেছে।

ব্র্যান্ডটি আপাতত শুধু চীনে এই সেবা চালু করছে। আর দেশটিতে ফোনের ব্যাটারি রিপ্লেসমেন্ট সেবা নিতে খরচ হবে বাংলাদেশী ৫০০ টাকার মতো। ধারণা করা হচ্ছে, চীনে চালুর অল্প সময়ের মধ্যেই তা অন্যান্য দেশে চালু করা হবে।

তবে এখনি সব মডেলে সেবাটি পাওয়া যাবে না। যেসব মডেলে সেবাটি পাওয়া যাবে সেগুলোর নামও জানিয়েছে শাওমি।

শাওমির দেওয়া তালিকায় স্থান পেয়েছে মি ৯, রেডমি নোট ৭ সিরিজ। এমনকি চার বছর আগের কিছু ফোনও এই তালিকায় রয়েছে।

যেসব ফোনে রিপ্লেসমেন্ট সেবা পাওয়া যাবে :

শাওমি মি ৫আই, মি ৫এস, মি ৬, মি ৬এক্স, মি ৮, মি ৮এসই, মি ৮ ইয়ুথ এডিশন, মি ৮ স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট এডিশন, মি ৮ এক্সপ্লোর এডিশন, শাওমি মি ৯, মি ৯এসই, মি ৯ প্রো, মি ৯ এক্সপ্রোর এডিশন, শাওমি মি ম্যাক্স ২, মি মিক্স ২, শাওমি মি মিক্স ২এস, রেডমি নোট৫, রেডমি ৬, রেডমি ৬এ, রেডমি নোট ৭ এবং রেডমি নোট ৭ প্রো।

এই ২০টি মডেলে আপাতত ব্যাটারি রিপ্লেসমেন্ট সেবা পাবেন শাওমি ব্যবহারকারীরা। তবে তালিকায় সামনে আরও ফোন যুক্ত হবে বলে জানা যায়।