ব্রিটেনে নির্বাচনে বড় প্রভাব রাখবে মুসলিম ভোটাররা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: 11:13 AM, December 9, 2019 | আপডেট: 11:13:AM, December 9, 2019
সংগৃহীত

ব্রিটেনে ১২ ডিসেম্বর সাধারণ নির্বাচন। এই নির্বাচনে মুসলিম ভোটাররা ব্যালট বাক্সে বড় প্রভাব ফেলতে পারে। ইসলামোফোবিয়ার উত্থান, ব্রেক্সিটকে ঘিরে অনিশ্চয়তা ও এর প্রভাব সত্ত্বেও মুসলিম ভোটাররা সেখানে অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

একটি নতুন সমীক্ষায় একথা বলা হয়েছে।

ব্রিটেনে মুসলিম জনসংখ্যা মাত্র ৫ শতাংশ হওয়া সত্ত্বেও মুসলিম কাউন্সিল অফ ব্রিটেনের (এমসিবি) প্রকাশিত একটি তালিকা অনুসারে ৩১টি প্রান্তিক আসন রয়েছে যেখানে ‘উচ্চ’ বা ‘মাঝারি’ মাত্রায় মুসলিম ভোটারদের প্রভাব পড়তে পারে।

৩১টি আসনের মধ্যে ১৮টি নির্বাচনক্ষেত্র চিহ্নিত করেছে যেখানে মুসলিম ভোটারদের উচ্চ প্রভাব থাকতে পারে এবং ১৩টিতে মুসলিম ভোটারদের মাঝারি প্রভাব পড়তে পারে।

উচ্চ-প্রভাব পড়বে এমন অঞ্চলের তালিকার মধ্যে শীর্ষে রয়েছে- কেনসিংটন, ডডলি নর্থ এবং রিচমন্ড পার্ক।

যুক্তরাজ্যের মুসলমানদের প্রধান প্রতিনিধি সংস্থা ‘মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেনস’ নির্দলীয় থাকবে। এমসিবি হলো ব্রিটেনের বৃহত্তম ও সর্বাধিক বৈচিত্র্যময় মুসলিম সংস্থা, যার অধীনে ৫০০ এরও বেশি অনুমোদিত, জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় সংস্থাসহ মসজিদ, দাতব্য সংস্থা ও স্কুল রয়েছে।

এটি কোনো রাজনৈতিক দল বা সম্ভাব্য সংসদীয় প্রার্থীকে সমর্থন করে না।

এমসিবির ৩১টি প্রান্তিক আসনের একটি তালিকা প্রকাশের পর ব্রিটেন মুসলিম কাউন্সিলের সেক্রেটারি জেনারেলে হারুন খান বলেছেন, আমাদের সমাজে সক্রিয় অংশগ্রহণকারী হিসেবে মুসলমানরা তাদের সামগ্রিক বৈচিত্র্যে আসন্ন নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন।

আমরা আশা করছি, নির্বাচনে মুসলিম প্রার্থীদের অংশগ্রহণের বিষয়টি সারা দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে পৌঁছে যাবে এবং তারা গুরুত্ব দেবে। নির্বাচনে মুসলিম ভোটারদের ‘উচ্চ’ বা ‘মাঝারি’ মানের প্রভাব থাকতে পারে। যে ৩১টি আসন মুসলিমদের দখলে আসতে পারে সেগুলোর ১৪ করে লেবার ও কনজারভেটিভের এবং বাকি তিনটি এসএনপির।
সূত্র : গার্ডিয়ান