বয়স অনুযায়ী কার কতটুকু ঘুমের প্রয়োজন?

প্রকাশিত: ৭:৩৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২০, ২০২১ | আপডেট: ৭:৩৬:অপরাহ্ণ, মার্চ ২০, ২০২১

সঠিক ঘুম শরীরের জন্য খুবই জরুরি। পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম দেহ ও মনকে চাঙ্গা রাখে; পরবর্তী দিনের কাজ করতে দেহকে প্রস্তুত করে। আবার যারা লম্বা সময় নিয়ে ঘুমায় তাদের সে ঘুম খুব একটা স্বাস্থ্যসম্মত নয়। কম ঘুমানোও শরীরের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

কম ঘুমের সমস্যা কী কী হতে পারে?

-ঘুম কম হলে অবসাদ বাড়ে। মনঃসংযোগ কমে যায়।

-নিয়ম করে ৭–৮ ঘণ্টা না ঘুম হলে ধৈর্য্য কমে যায়। মেজাজ চড়ে যায়।

-ঘুমের মধ্যে গ্রোথ হরমোন বেশি নিঃসৃত হয়। তাই বাচ্চার কম ঘুমোলে তাদের ঠিক মতো বৃদ্ধি হয় না।

-ঘুমের মধ্যে নাক ডাকার সমস্যা থাকলে রক্তচাপ বাড়ে। হৃদরোগ ও মস্তিষ্কে রক্ত ক্ষরণের আশঙ্কা দেখা দেয়।

-সারা পৃথিবীর ৪ শতাংশ মানুষের স্লিপ অ্যাপনিয়া আছে।

প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ঘুমের বিশেষজ্ঞ-টিপস

১. নির্দিষ্ট সময় তৈরি করে নিন ঘুমতে যাওয়া এবং ঘুম থেকে ওঠার।

২. দিনের বেলায় ঘুমনোর অভ্যেস যদি থাকে তবে, তা ৪৫ মিনিটের বেশি যেন না হয়।

৩. ঘুমের আগেই মদ্যপান করবেন না। ঘুমনোর আগে কিছুতেই ধূমপান করবেন না।

৪. ঘুমনোর আগে কখনই ব্যায়াম করবেন না। অত্যধিক মশলাদার খাবার খেয়ে ঘুমোতে যাবেন না।

৫. আরামদায়ক বিছানায় ঘুমোন।

বয়সভেদে ঘুমের মাত্রার তারতম্য রয়েছে। যেমন শিশুদের একটু বেশি ঘুমাতে হয় প্রবীণ ও প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায়। বয়স অনুযায়ী প্রতিদিন কোন মানুষের কতটুকু ঘুমানো জরুরি; এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন।

ঘুম নিয়ে তাদের সে পরামর্শগুলো পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল।

* শূন্য থেকে ৩ মাস বয়সী শিশুদের ১৪ থেকে ১৭ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন।

* ৪ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুদের জন্য ১২ থেকে ১৫ ঘণ্টা ঘুম দরকার হয়।

* ১ থেকে ২ বছর বয়সী শিশুদের দরকার হয় ১১ থেকে ১৪ ঘণ্টার ঘুম।

* ৩ থেকে ৫ বছর বয়সীদের জন্য ১০ থেকে ১৩ ঘণ্টা।

* ৬ থেকে ১৩ বছর বয়সী শিশুদের রাতে অন্তত ৯-১১ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন। তবে নিয়মিত ৭-৮ ঘণ্টা ঠিকঠাক ঘুমাতে পারলেও ওরা নিজেকে চালিয়ে নিতে পারে।

* ৮-১০ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন ১৪ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের।

* ১৮ থেকে ২৫ বছর বয়সী মানুষের রাতে ৭-৯ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন।

* ২৬ থেকে ৬৪ বছর বয়সী মানুষের রাতে ৭-৯ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন।

* ৬৫ বছরের চেয়ে বেশি বয়সীদের জন্য ঘুমানো প্রয়োজন ৭-৮ ঘণ্টা।