‘ভাই’ বলায় রেগে যাওয়া সেই ব্যাংক ম্যানেজারের তদন্ত শুরু

প্রকাশিত: ৬:৪৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৪৪:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯

ঢাকার ধামরাইয়ে এক ব্যাংক ম্যানেজারকে ‘স্যার’ না বলায় সেবা গ্রহীতার সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করে ব্যাংক থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ে তদন্ত শুরু করেছেন আঞ্চলিক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) হারুন অর রশিদ।

আজ মঙ্গলবার ধামরাই বাজার শাখা কৃষি ব্যাংক কার্যালয়ে ভুক্তভোগী সেবা গ্রহীতা জাকির হোসেন, ব্যাংক ম্যানেজার সোহরাব জাকিরসহ ঘটনার দিন উপস্থিত সেন্টু মিয়া নামে এক ব্যক্তির লিখিত বক্তব্য গ্রহণ করেন তিনি।

তদন্ত কর্মকর্তা আঞ্চলিক উপমহাব্যবস্থাপক হারুন অর রশিদ জানান, দি বাংলাদেশ টুডে’সহ বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে ‘স্যার না বলে ‘ভাই’ ডাকায় গ্রাহককে ব্যাংক থেকে বের করে দিলেন ম্যানেজার’ এই শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর ধামরাই বাজার শাখার কৃষি ব্যাংকে তদন্তের জন্য ঊধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ তাকে দায়িত্ব দেয়। সে মোতাবেক সংশ্লিষ্টদের লিখিত বক্তব্য নেওয়া হয়েছে। আজই কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিতভাবে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ, গত রবিবার ধামরাই উপজেলার নান্নার গ্রামের ইছামুদ্দিনের ছেলে জাকির হোসেন ধামরাই বাজার কৃষি ব্যাংক শাখায় যান। তিনি ব্যাংক ম্যানেজার সোহরাব জাকিরের কক্ষে গিয়ে ম্যানেজারের কাছে জানতে চান একটি গবাদিপশুর খামারের জন্য ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে হলে কি কি কাগজপত্রাদি লাগবে।

এ সময় সেবা গ্রহীতা জাকির হোসেন ব্যাংক ম্যানেজার সোহরাব জাকিরকে দুই বার ‘ভাই’ বলে সম্বোধন করেন। এতে সোহরাব জাকির ক্ষিপ্ত হয়ে জাকিরের সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করেন। এতে ম্যানেজারের সঙ্গে বাকবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে ম্যানেজার ব্যাংক থেকে বের করে দেন তাকে। ওই সময় ম্যানেজারের কাণ্ড দেখে উপস্থিত গ্রাহকরা অসন্তোষ প্রকাশ করেন।