ভারতকে ভয় পেয়ে লাভ আছে? খেলতে হবে, জিততে হবে: মাশরাফি

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯ | আপডেট: ১১:১৪:পূর্বাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯

আফগানিস্তানকে হারানোর পর সেমিফাইনালে খেলার সম্ভাব্য ছক কষছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে নিজেদের সপ্তম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়টি বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস বহুগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। তবে ভারতের সঙ্গে পরবর্তী ম্যাচটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

এটা জানা কথা, ভারতের সঙ্গে ম্যাচ মানেই অনেক চাপ। ভারত সম্ভবত বিশ্বের সেরা দল। টাইগারদের সেমি-ফাইনালে যেতে হলে ভারতকে হারাতে হবে। বিকল্প কোনো পথ নেই টাইগারদের সামনে!

বাংলাদেশের হাতে এখনো দুটি ম্যাচ। আগামী ২ জুলাই ভারতের বিপক্ষে টাইগারদের অষ্টম ম্যাচ। আর ৫ জুলাই গ্রুপ পর্বের নিজেদের শেষ ম্যাচ; পাকিস্তানের বিপক্ষে; বিশ্বকাপে প্রতিটি ম্যাচই এখন নিজেদের শেষ ম্যাচ হিসেবে দেখছে দল। যেখানে জয় ছাড়া উপায় নেই! আফগানদের হারিয়ে সেমির স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলেও ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি কঠিন; আফগানদের তুলনায়! টিম ইন্ডিয়াকে হারানো এত সহজ নয়।

দেশের শীর্ষস্থানীয় একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে টাইগার কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, ‘সেমিতে যেতে হলে জিততে হবে (আগামী দুই ম্যাচ)। আপাতত আমাদের কাছে ভারতের ম্যাচটি সেমি-ফাইনাল বা ফাইনাল, বা বলতে পারেন সবকিছুই। ডু অর ডাই ম্যাচ। শক্তিতে আমরা কতটা পিছিয়ে, ওরা কতটা ফেভারিট, এসব ভাবার সুযোগ নেই। টিকতে হলে জিততে হবে, জেতার পথ বের করতে হবে।’

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ ভারতের মুখোমুখি হয়েছে ৩ বার। যেখানে টাইগারদের এক জয়ের বিপরীতে টিম ইন্ডিয়ার জয় দুটি! এছাড়া সব মিলিয়ে ওয়ানডেতে এখন পর্যন্ত টাইগাররা ৩৫টি ম্যাচের ভারতের বিপক্ষে খেলেছে; বাংলাদেশের মাত্র ৫টি জয়ের বিপরীতে শক্তিশালী ভারতের জয় ২৯টি ম্যাচে!

উপরের পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে বাংলাদেশের তুলনায় ভারত কতটা শক্তিশালী। তবে আপাতত এসব কিছু মাথায় নিতে চান না অধিনায়ক ম্যাশ। ভারতকে হারানো অসম্ভব কিছু নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ভারতকে হারানো অসম্ভব নয়, অবশ্যই পথ আছে। যদিও বার্মিংহামে ওদেরকে হারানো সহজ হবে না। তবে পরিকল্পনার বাস্তবায়ন যদি আমরা ঠিকঠাক করতে পারি, সবাই সেরাটা দিতে পারে, অবশ্যই সম্ভব।’

সবশেষ বাংলাদেশ ভারতের বিপক্ষে হেরেছে ২০১৮ সালের এশিয়া কাপের ফাইনালে। ভারত চ্যাম্পিয়ন হলেও ওই ম্যাচে তাদের কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছিল টাইগাররা। ৪৮.৩ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ ২২২ রান করে; জবাবে টিম ইন্ডিয়াকে নির্ধারিত ওভারের শেষ বল পর্যন্ত খেলতে হয়েছে। ওই ম্যাচে ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছে বাংলাদেশিরা কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে!

সুতরাং ভারতকে ভয় পাওয়ার কিছু নেই! ম্যাশ বলেন, ‘ভয় পেয়ে লাভ আছে? খেলতে হবে, জিততে হবে। হিসাব সোজা। মাঠে নেমে আমরা সমানে সমান লড়াই করব। তার পর যা হয়।’