ভারতের নৌরুটে বাংলাদেশি লাইটার জাহাজে ডাকাতি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:২৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৮ | আপডেট: ৭:২৪:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৮

বাংলাদেশ-ভারত নৌপ্রটোকল রুটে চব্বিশ পরগোনা জেলার কাকদ্বীপ ঘোড়ামারা নৌপয়েন্টে পণ্যবাহী একটি লাইটার জাহাজে ডাকাতি ও হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাংলাদেশি ওই লাইটার জাহাজের মাস্টারসহ ১২ নাবিককে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতরা নগদ টাকা, জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য লুটে নেয়।

গত রাতে এমভি রাদিয়া নামে ওই লাইটার জাহাজটি মোংলা বন্দরে ভিড়ে। এর পর ক্ষতিগ্রস্ত ও আহত নাবিকরা এ তথ্য জানান। জাহাজের মাস্টার বাবুল হোসেন জানান, গত ২৩ আগস্ট ভারতের ঘোড়ামারা নৌপয়েন্টে রাত ৮টার দিকে নোঙর করে যাত্রাবিরতি থাকাবস্থায় তিনটি ট্রলারযোগে ৩০-৩৫ জনের এক দল সশস্ত্র ডাকাত তাদের জাহাজে হানা দেয়। নাবিকদের মারধরসহ হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে দুই ঘণ্টারও বেশি সময় লুটপাট চালায় ডাকাতরা।

এ ডাকাতির ঘটনার প্রতিবাদে রাতেই লাইটার শ্রমিক ইউনিয়নের মোংলা শাখা কার্যালয়ে নৌযান শ্রমিকদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। মাস্টার ফিরোজ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বাংলাদেশি লাইটার জাহাজে ডাকাতির ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন নৌযান শ্রমিকরা।

তারা বলেন, ভারতীয় পুলিশ এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও জরুরি আইনিব্যবস্থা গ্রহণ না করলে বাংলাদেশ-ভারত রুটে সsব প্রকার পণ্যবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হবে।