ভারতের পেঁয়াজ আমদানি বিষয়ে যা বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৬:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২০ | আপডেট: ৬:১০:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২০

ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানির বিষয়ে প্রস্তাব পেলে বিবেচনা করার কথা জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেছেন, আমরা এখনো অফিসিয়ালি কোনো প্রস্তাব পাইনি। প্রস্তাব পেলে সরকার বিচার-বিবেচনা করবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা জানান।

ভারতের আমদানি খরচের থেকেও কম দামে বাংলাদেশকে পেঁয়াজ দিতে যাচ্ছে- এমন প্রশ্নে টিপু মুনশি বলেন, প্রাইস কী সেটা ম্যাটার না। আমরা অফিসিয়ালি এ ধরনের কোনো প্রোপোজাল (প্রস্তাব) পাইনি। তাছাড়া এটা আমাদের কন্সিডারেশনেও নেই। এ ধরনের প্রোপোজাল এলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হয়েই আসবে।

যদি প্রস্তাব দেওয়া হয় তাহলে সরকার কী করবে? এমন প্রশ্নের উত্তরে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রস্তাব এলে দেখে বিবেচনা করবো। সেটা কী ধরনের প্রোপোজাল। কিন্তু আমরা তো এখন নিজেরাই সরাসরি আমদানি করছি। তারপরও যদি স্যুইটেবল হয় দেখা যাবে। কিন্তু এখন আমাদের এটা কন্সিডারেশনে নেই।

এদিকে ভারতের বিভিন্ন রাজ্য সরকারের চাহিদার ভিত্তিতে পেঁয়াজ আমদানি করার পর বিপদে পড়েছে দেশটির সরকার। কেন্দ্রীয় সরকার পেঁয়াজ আমদানির পর ভারতের বেশিরভাগ রাজ্য সরকার তাদের চাহিদা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় এ বিপদ দেখা দিয়েছে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ভারতের কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার রকিবুল হকের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে দেশীয় চাহিদার ভিত্তিতে আমদানি করা পেঁয়াজ রাজ্য সরকার কিনতে রাজি না হওয়ায় বাংলাদেশকে কিনে নেওয়ার প্রস্তাব দেন ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী।