ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসতে পাকিস্তানের শর্ত

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৩০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৩০:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি জানিয়েছেন, ভারতের সঙ্গে শর্তসাপেক্ষে পাকিস্তান আলোচনায় বসতে রাজি রয়েছে। তবে আলোচনার জন্য ভারতকে কয়েকটি শর্ত পূরণ করতে হবে বলে জানান তিনি।

শনিবার বিবিসি উর্দুকে দেয়া বিশেষ সাক্ষাৎকারে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান কখনও আলোচনায় বসতে অস্বীকৃতি জানায়নি। কিন্তু ভারতের পক্ষ থেকে আলোচনার সব পথ বন্ধ রাখা হয়েছে। দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় আমাদের কোনো আপত্তি নেই। এ জন্য তৃতীয়পক্ষের কোনো উদ্যোগ বা সহায়তাকেও আমরা স্বাগত জানাব।

মাহমুদ কোরেশি বলেন, কাশ্মীরে দীর্ঘ সময় ধরে কারফিউ চলছে, সেখানকার মানুষ এক ধরনের খাঁচাবন্দি জীবনযাপন করছে। এমন প্রেক্ষাপটে আমি আলোচনার কোনো পরিবেশ দেখছি না।

ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্য শর্তারোপ করে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভারত যদি আলোচনায় আগ্রহী হয়, তাহলে কাশ্মীরে কারফিউ তুলে নিয়ে সেখানকার নাগরিকদের স্বাভাবিক জীবনযাপনের অধিকার দিতে হবে। কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী নেতাদের মুক্তি দিলে আমি তাদের সঙ্গে আলোচনার পর আমরা ভারতের সঙ্গে বসতে পারি।

মাহমুদ কোরেশি বলেন, চলমান সংকটে তিনটি প্রতিপক্ষ রয়েছে। ভারত,পাকিস্তান এবং কাশ্মীর। ভারত যদি আলোচনায় আগ্রহী হয়, তাহলে আগে কাশ্মীরি নেতাদের মুক্তি দিয়ে তাদের সঙ্গে আমাকে আলোচনায় বসার অনুমতি দিতে হবে। কারণ ভারতের সঙ্গে আলোচনার আগে কাশ্মীরিদের মনোভাব আমাদের জানতে হবে।

তিনি বলেন, নিপীড়িত কাশ্মীরিদের আবেগ অনুভূতিকে সম্মান না জানিয়ে আমরা ভারতের সঙ্গে কোনো আলোচনায় বসতে পারি না।বিবিসি উর্দু