ভারতে চতুর্থ ধাপে লকডাউন ঘোষণা দিলেন মোদি

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৪৫ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২০ | আপডেট: ১০:০১:অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২০
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ফাইল ছবি

ভারত জুড়ে তৃতীয় ধাপে ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউন চলছে। এরই মধ্যে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া এক ভাষণে চতুর্থ ধাপের লকডাউনের কথা জানিয়েছেন। আর সেই লকডাউনের পদ্ধতি হবে সম্পূর্ণ নতুন। ১৮ মের আগেই ঘোষণা করা হবে নতুন লকডাউন। তবে কি পদ্ধতিতে লকডাউন দেয়া কথা তা খোলসা করেননি। খবর-ইন্ডিয়া টাইমস।

মঙ্গলবার রাত ৮ টায় জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা করে তিনি বলেন, ‘এই আর্থিক প্যাকেজ আত্মনির্ভর ভারতকে এগিয়ে দেবে। সমস্ত প্যাকেজ জুড়লে ২০ লক্ষ কোটি টাকার মতো হবে। যা দেশের জিডিপির প্রায় ১০ শতাংশ। ২০২০ সালে ২০ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ আত্মনির্ভর ভারত অভিযানকে নতুন গতি দেবে।’ এই প্যাকেজে জমি-শ্রমিক সবকিছুর উপরই নজর দেওয়া হয়েছে। মধ্যবিত্তের জন্য এই প্যাকেজ। আগামীকাল থেকে অর্থমন্ত্রী এই প্যাকেজের বিষয়ে নতুন তথ্য দেবে বলেও জানান নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘৪২ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত, পৌনে তিন লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ভারতেও বহু মানুষ তাঁদের আত্মীয়কে হারিয়েছেন। তাঁদের প্রতি সমবেদনা। একটা ভাইরাস দুনিয়াতে ত্রাস হয়ে উঠেছে। গোটা বিশ্ব প্রাণ বাঁচাতে যুদ্ধ করছে। এমন সংকট না দেখেছি, না শুনেছি। নিশ্চিতভাবেই মানুষের জন্যে এই পরিস্থিতি অভূতপূর্ব। কিন্তু ভেঙে পড়লে চলবে না। মানুষকে তা মানায় না। সতর্ক থাকতে হবে। সমস্ত নিয়ম মেনে আমাদের এবার বাঁচতে হবে। এগোতেও হবে। আমাদের সংকল্প মজবুত করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আগে থেকেই শুনছি এই শতাব্দী আমাদের দেশ ভারতের। এই শতাব্দী আমাদের হবে, এটা স্বপ্ন নয়, আমাদের দায়িত্বও হবে। বিশ্বের আজকের পরিস্থিতি আমাদের বোঝাচ্ছে, আত্মনির্ভর ভারত হতে হবে।’ শাস্ত্রতেও বলেছে, আত্মনির্ভরতার কথা। একটা দেশ হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় দাঁড়িয়ে আছি আমরা। করোনা সংকট শুরুর সময় একটাও পিপিই ছিল না। N95 মাস্ক তৈরি হত না তেমন, এখন লাখ-লাখ তৈরি হচ্ছে। আত্মনির্ভর ভারতের এটাই সংকেত। আশার দিক দেখাচ্ছে।’

এ দিন ট্যুইটে ভাষণের কথা প্রধানমন্ত্রীর দফতরের তরফে। তৃতীয় দফার লকডাউন শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ আগেই সোমবার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিয়ো বৈঠকে যোগ দেন নমো। করোনা মোকাবিলায় পরবর্তী রণকৌশল নিয়ে আলোচনা প্রয়োজন বলে বৈঠকে জানান তিনি। বৈঠকে লকডাউন আরও বাড়ানোর ইঙ্গিত মিলেছে। জাতির উদ্দেশে ভাষণে সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নতুন কোনও ঘোষণা করতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

ভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে সোমবার অনলাইনে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। পূর্ব নির্ধারিত ওই বৈঠকের পরেই ১৭ মে’র পর আরও এক দফায় লকডাউন বাড়ানোর কথা গুরুত্ব দিয়ে ভাবছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীদের বড় অংশই কিন্তু লকডাউন বাড়িয়ে যাওয়ার পক্ষেই সওয়াল করেন। প্রধানমন্ত্রী রাজ্যগুলির কাছে লকডাউন বিষয়ে সাজেশান লিখিত আকারে চেয়েছেন।

সরকারি সূত্রে খবর, তৃতীয় দফায় দেশজুড়ে সন্ধে ৭টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত কারফিউ আগের মতোই বলবত্‍ থাকবে। সংক্রমণের প্রকোপ রুখতে আর কী কী করা যায়, কোন কোন ক্ষেত্রে কী ভাবে ছাড়া দেওয়া যায়, সে বিষয়েই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের কাছে লিখিত আকারে পরামর্শ চান।