ভিক্ষা করে জমানো লাখ রুপি রোদে শুকাতে দিলেন বৃদ্ধা

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:২৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০২০ | আপডেট: ৩:২৯:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০২০

মন্দিরে মন্দিরে ভিক্ষা করে বেড়ান। এভাবেই দিন কাটে এক বৃদ্ধার। কয়েকদিন আগে ভাঙা বাড়িতে বৃষ্টির পানি ঢুকে পড়ে। পরে ঘর পরিষ্কার করে জমানো টাকা রোদে শুকাতে দেন তিনি। এরপরই গ্রামের সবার চোখে পড়েন তিনি। এ ঘটনা ভারতের কেরালার কোট্টায়ামে। খবর নিউজ ১৮।

বাড়ির পাশেই এক মন্দিরে ভিক্ষে করেন তিনি। মাঝে মধ্যে মন্দিরের কাজ করেও কিছু টাকা পয়সা বা খাবার পান। এভাবেই কাটছিল তাঁর দিন। কিন্তু হঠাৎ এই বৃদ্ধা ওই গ্রামের হিরো হয়ে ওঠেন।

তাঁর ভাঙা বাড়িতে বৃষ্টির জল ঢুকে পড়ায়, বৃদ্ধা ঘর পরিস্কার করা শুরু করে। তখন ঘর থেকে সে একটি কাপড়ের টোপলা বের করে আনে। সেই টোপলা খুলে তিনি রোদে শুকোতে দিলেন টাকা।

যা দেখে মাথা খারাপ হয়ে যায় ওই গ্রামের মানুষের। এত ভিজে নোট তিনি পেলেন কোথায়? গ্রামের লোক অত নোট দেখে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে তদন্ত শুরু করতেই বেরিয়ে আসে সত্যি।

২৫ বছর ধরে ভিক্ষে করে ওই বৃদ্ধা যা টাকা পেয়েছেন সব ওই টোপলায় রেখেছেন। এমনকি কাজ করে যা পেয়েছেন তাও জমিয়ে রেখেছেন। এগুলো সব তাঁর জমানো টাকা।

এর পর গোনা শুরু হয় টাকা। দেখা যায় এর মধ্যে ব্যান হয়ে যাওয়া নোটও আছে। ৫০০ এবং হাজারের নোট রয়েছে যেগুলি অচল। প্রায় ৩২ হাজার টাকার মতো অচল নোট পাওয়া যায় তাঁর কাছে।

বাকি ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা পাওয়া যায়। যা পুলিশ ওর বৃদ্ধার নামে ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে জমা করে দেয়। এই ঘটনায় সবাই অবাক হয়। না খেয়ে ২৫ বছর ধরে এই টাকা সঞ্চয় করেছেন ওই বৃদ্ধা। তিনি নিজেও জানতেন না কত টাকা আছে তাঁর!