ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে ৮ বছর ধরে পুলিশে চাকরি!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৪৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৪৬:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৮

জাল মুক্তিযোদ্ধা সনদে পুলিশ বাহিনীতে কনস্টেবল পদে চাকরি নেয়ার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা বাবা ও নারী কনস্টেবলকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে বরিশালের অতিরিক্ত চিফ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মারুফ আহম্মেদ তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

তারা হলেন- বরিশাল সদর উপজেলার চরকেউটিয়া এলাকার ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক সুবেদার আব্দুল লতিফ গাজী এবং তার মেয়ে নারী কনস্টেবল মিল্কী আক্তার।

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের এসআই খোকন বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদ দিয়ে ২০১০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি নারী কনস্টেবল মিল্কী আক্তার চাকরি পান। গত আট বছর ধরে কনস্টেবল পদে ছিলেন মিল্কী।

পরে মিল্কীর আক্তারের বাবা আব্দুল লতিফ গাজীর মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাছাই শেষে জানা যায় সনদটি জাল। এর আগে ৬ মাসের ট্রেনিং শেষ করে বরিশাল পুলিশে যোগদান করেন নারী কনস্টেবল মিল্কী আক্তার।

এ ঘটনায় পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশে রিজার্ভ পুলিশের এসআই কবির হোসেন ২০১৮ সালের ৩০ মে বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের প্রার্থনা করলে তাদের উভয়কে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।