‘ভুয়া সংবাদরোধী’ আইন বাতিল করলো মালয়েশিয়া

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৫৭:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮

‘ভুয়া সংবাদ’ রোধে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক প্রশাসনের করা একটি আইন বৃহস্পতিবার রদ করেছে মালয়েশিয়ার পার্লামেন্ট। চলতি বছরের এপ্রিলে নাজিব সরকার অ্যান্টি-ফেক নিউজ ২০১৮ বিল পাস করে। যেখানে এ ধরনের নিউজের জন্য সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ রিঙ্গিত জরিমানা এবং ছয় বছর পর্যন্ত জেলের বিধান রাখা হয়। খবর জিও টিভির।

এই আইনকে নিপীড়নমূলক উল্লেখ করে এর নিন্দা জানিয়েছিল সমালোচকরা। তাদের অভিযোগ ছিল মে মাসের সাধারণ নির্বাচনের আগে বাক স্বাধীনতা এবং সরকারের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার সমালোচনা রুখতেই এই আইন করা হচ্ছে।

গত মে মাসের ওই নির্বাচনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোটের কাছে হেরে যান নাজিব।
ওই আইন বাতিলের আগে এটি নিয়ে পার্লামেন্টে প্রায় তিন ঘণ্টা বিতর্ক হয়। পরে কণ্ঠ ভোটে ওই আইন বাতিলের সিদ্ধান্ত পাস হয়।

অধিকার গ্রুপগুলো সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। আশিয়ান পার্লামেন্টারিয়ান্স ফর হিউম্যান রাইটসের একজন বোর্ড সদস্য টেডি বাগুইলাট বলেছেন, ওই আইন স্পষ্টভাবে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সমালোচনা বন্ধ এবং জনবিতর্ক প্রশমন করার জন্য তৈরি করা হয়েছিল। এই আইন পাস করাই ঠিক হয়নি।

এশিয়ার এই অঞ্চলে মালয়েশিয়ায় প্রথম দেশ যারা ভুয়া সংবাদরোধী আইন পাস করেছিল। অন্যান্য দেশের মধ্যে সিঙ্গাপুর এবং ফিলিপিন্স জানিয়েছে, কীভাবে ‘ভুয়া সংবাদ’ মোকাবেলা করা যায় সেটি বিবেচনা করছে তারা।

সোশ্যাল মিডিয়া ঘৃণামূলক পোস্ট সরিয়ে দিতে ব্যর্থ হলে জরিমানার একটি পরিকল্পনা গত বছর অনুমোদন দেয় জার্মানি।

মাহাথির নিজেও ভুয়া সংবাদ ছড়িয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। কর্মকর্তারা বলছেন, নির্বাচনের আগে তাকে বহনকারী বিমান নাশকতার শিকার হয়েছিল মাহাথিরের এমন দাবি মিথ্যা।