ভোলায় গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে মা ইলিশ শিকার, ৯ জানের কারাদণ্ড

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:৫২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০১৯ | আপডেট: ১:৫২:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০১৯
সংগৃহীত

ভোলায় গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে মা ইলিশ শিকারের দায়ে পাঁচ গ্রাম পুলিশসহ ৯ জনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী হাকিম মো. কাওছার হোসেন এ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। এ সময় দিন মোহাম্মদ ও জসিম নামের দুই জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ভোলার দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মো. ইউছুফ, একই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মো. মোশারেফ হোসেন (হেজু), ২নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ আব্দুল মন্নান, ৩নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মো. হেলাল ও ৫নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মো. লোকমান হোসেন। বাকী দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, সদর উপজেলার মো. নুরউদ্দিন, মো. ইউছুফ, মো. অহিদ ও মো. ইব্রাহীম।

সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, মঙ্গলবার সকালে মৎস্য বিভাগ ও নৌ পুলিশের একটি টিম ভোলার মেঘনা নদীতে অভিযানে যায়। এসময় মেঘনা নদীর ভোলার খাল পয়েন্ট থেকে একটি ট্রলারে পাঁচ জন গ্রাম পুলিশকে পোশাক পরিহিত অবস্থায় মাছ ও জালসহ আটক করা হয়।

তাদের কাছ থেকে ১০ কেজি মা ইলিশ ও এক হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে এর আগেও নিষিদ্ধকালীন সময়ে নদীতে জেলেদের দিয়ে মাছ ধরানো এবং জেলেদের থেকে জাল-মাছ নিয়ে যাওয়াসহ নান অভিযোগ রয়েছে।

তিনি আরও জানান, গ্রাম পুলিশ ছাড়াও ৬ জেলেকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচ গ্রাম পুলিশ ও চার জেলেকে এক বছর করে কারাদণ্ড ও দুই জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। দেশের ইলিশ সম্পদ রক্ষায় মৎস্য বিভাগের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।