স্বামীর শারীরিক অক্ষমতা নিয়ে মনোমালিন্য, অতপর স্ত্রীর করুণ পরিণতি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৪ অপরাহ্ণ, মে ১০, ২০২১ | আপডেট: ১২:০৬:অপরাহ্ণ, মে ১০, ২০২১

রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের নিলকচন্ডি গ্রামে ঈদের কেনাকাটা নিয়ে ঝগড়া করায় এক গৃহবধূকে গলা টিপে খুন করেছেন স্বামী। এ ঘটনায় স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। চার মাস আগে জেসমিনকে বিয়ে করেছিলেন মোতালেব।

রোববার (০৯ মে) সকালে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এর আগে শনিবার (৮ মে) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জেসমিন আক্তার (২০) রংপুর মহানগরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাহাদুর সিং গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে। অভিযুক্ত আব্দুল মোতালেব নিলকচন্ডি গ্রামের হোসেন মিয়ার ছেলে।

পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে জেসমিন আক্তারের সঙ্গে আব্দুল মোতালেবের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামীর শারীরিক অক্ষমতা নিয়ে দুই জনের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। এই বিষয়টি জেসমিন তার আত্মীয়-স্বজন ও মোতালেবের পরিবারকে জানান। এ কারণে ক্ষিপ্ত হন মোতালেব। পরে শনিবার রাতে ঈদের কেনাকাটা নিয়ে দুই জনের ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে মোতালেব রাগান্বিত হয়ে জেসমিনকে গলা টিপে খুন করেন। পরে সংবাদ পেয়ে অভিযুক্ত মোতালেবের বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ সময় মোতালেবকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

এ বিষয়ে গঙ্গাচড়া মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুশান্ত কুমার সরকার বলেন, মোতালেবের বিরুদ্ধে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ করেছেন স্বজনরা। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জেসমিনের পরিবার থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।