মহানবী (সা.)-এর অবমাননা বন্ধে পৃথক আইনের দাবি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৮:৪৩:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০

মহানবী (সা.)-এর অবমাননা বন্ধে পৃথক শরিয়া আইন জারি করার দাবি জানিয়েছে যুব আনজুমান‌ে আল বাই‌য়্যিনাত।

আজ রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে মহানবীর অবমাননার বিষয়ে রাষ্ট্র ও জনগণের করণীয় শীর্ষক আয়োজিত এক সেমিনারে বক্তারা এ দাবি জানান।

এ সময় বক্তারা বলেন, সাংবিধানিক রাষ্ট্র দ্বীন-ইসলাম এবং উনার প্রধান হিসাবে রাসূল (সা.)-এর শানে মানহানির বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ও কার্যকরী শরিয়া আইন জারি করা, যার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান করতে হবে। পাশাপাশি এ বিষয়ে দ্রুত বিচারের জন্য পৃথক ট্রাইব্যুনাল ও শক্তিশালী মনিটরিং সেল গঠন করতে হবে।

পৃথিবীর যে কোনো প্রান্তে ফ্রান্সের মত মানহানিকর ঘটনা ঘটলে, রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাতে হবে। এ বিষয়ে জনগণের আবেগ-অনুভূতি ও দাবি-দাওয়ার বিষয়গুলো যথাস্থানে বা অভিযুক্ত রাষ্ট্রে পৌঁছে দিতে হবে। এমন অপকর্মের পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে ফ্রান্সসহ বিশ্বের সকল দেশকে ৪টি নীতি গ্রহণে বাধ্য করতে হবে।

আন্তর্জাতিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বক্তারা বলেন, সরকারের উচিত এই নীতিগুলো আন্তর্জাতিক অঙ্গন তথা জাতিসংঘ বা ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রস্তাব আকারে উত্থাপন করা। প্রয়োজনে ওআইসির মত ইসলামী জোটগুলোকে সাথে নিয়ে দাবিগুলো উত্থাপন করতে হবে।

তাদের দাবিগুলো হলো- ১. পবিত্র দ্বীন ইসলাম পালন করার পূর্ণ স্বাধীনতা থাকতে হবে। ২. পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতিকে সম্মান করতে হবে। ৩. পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতিতে আঘাত করাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে জারি করতে হবে। ৪. পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতিকে আঘাত করার এই জঘন্য অপরাধকে আইন করে বন্ধ করতে হবে।

যুব আনজুমানের সভাপতি মুহম্মদ আরিফুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন সুমনের উপস্থিতিতে এসময় বক্তব্য রাখেন যুব আনজুমানের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহম্মদ আমিনুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক সাইয়্যিদ মুহম্মদ নূরুদ্দীন পলাশ, অর্থ সম্পাদক মুহম্মদ আবু বকর সিদ্দীক হাসান, দফতর সম্পাদক মুহম্মদ জিয়াউল হক, মুহম্মদ আবীর ও মুহম্মদ সামদানী প্রমুখ।