মাতৃকালীন ছুটি, যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিল ফিফা

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৫, ২০২০ | আপডেট: ৯:১৭:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৫, ২০২০

নারী ফুটবলারদের জন্য যুগান্তকারী এক সিদ্ধান্ত নিল ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। এখন থেকে নারী ফুটবলাররা ১৪ সপ্তাহের মাতৃত্বকালীন ছুটি পাবেন। নতুন নিয়ম অনুযায়ী সন্তান জন্মের পর সংশ্লিষ্ট নারী ফুটবলারকে কমপক্ষে ৮ সপ্তাহ বাধ্যতামূলক ছুটি দিতে হবে।

মাতৃত্বকালীন ছুটি শেষ হলে সেই নারী ফুটবলারকে ক্লাবে বহাল করতে হবে এবং একই সঙ্গে তার চিকিৎসার বন্দোবস্ত যাতে সংশ্লিষ্ট ক্লাব থেকে করা হয় সে দিকেও নজর দিতে হবে।

শুক্রবার ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফান্তিনো (Gianni Infantino) জানিয়ে দেন, মাতৃকালীন ছুটি নিয়ে নতুন নিয়ম চালু হল। আর সেই নিয়ম অনুযায়ীই, এবার থেকে অন্তঃসত্ত্বা ফুটবলার সন্তানের জন্ম দেওয়ার জন্য ১৪ সপ্তাহের ছুটি পাবেন। ওই মহিলা ফুটবলার যে ক্লাবের জার্সিতে খেলেন, সেই ক্লাবকেও নিয়ম মেনে ছুটি মঞ্জুর করতে হবে। পাশাপাশি তাঁকে চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্ত দিকের খেয়ালও রাখতে হবে। আবার সুস্থ হয়ে তিনি সেই ক্লাবের হয়েই খেলতে পারবেন। বিশ্বের সব প্রান্তের ফুটবলারদের জন্য একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। ফিফার এই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তে নিঃসন্দেহে উপকৃত হবেন ফুটবলাররা।

ফিফা প্রেসিডেন্ট ইনফান্তিনো নয়া নিয়মের কথা ঘোষণা করে বলেন, “আমরা যদি সত্যিই চাই, আরও বেশি করে মহিলারা খেলায় আগ্রহী হয়ে উঠুক, তাহলে এই সমস্ত বিষয়গুলির দিকেও নজর দেওয়া অত্যন্ত জরুরি। মহিলা খেলোয়াড়দের কেরিয়ারেরও ধারাবাহিকতা বজায় থাকা দরকার। আর তাঁদের জন্য মাতৃকালীন ছুটির ব্যবস্থা করলে আলাদা করে কেরিয়ার নিয়ে চিন্তায় পড়তে হয় না। কবে ফুটবল পায়ে নামতে পারবেন, সেসব দুশ্চিন্তায় ভুগতে হবে না।”

এর পাশাপাশি কোচেদের স্থায়িত্ব বাড়াতেও নাকি নয়া নিয়ম আনছে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। যদিও সে নিয়ে ফিফার ভাবনাচিন্তা বিস্তারিত জানানো হয়নি। ফিফা প্রেসিডেন্ট শুধু জানিয়েছেন, “কোচেরাই তো খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা জোগান। তাই তাঁদের চাকরির স্থায়িত্ব নিশ্চিত করাটাও জরুরি। আমরা কোচেদের জন্য একটা ন্যূনতম নিয়ম প্রযোজ্য করার কথা ভেবেছি।” ফুটবলারদের মাতৃকালীন ছুটির পর কোচেদের জন্য কী নিয়ম চালু হতে চলেছে, এখন সেটাই দেখার।