মাদ্রাসা ছাত্রকে মারধর, দুই শিক্ষক আটক

প্রকাশিত: ৫:৩৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২০ | আপডেট: ৫:৪১:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২০
প্রতীকী ছবি

চুয়াডাঙ্গা জীবননগরে নাসিম হোসেন (৭) নামে এক মাদরাসা শিশু ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

গেল বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার কাশিপুর দারুল উলুম কওমি মাদরাসায় এ ঘটনা ঘটে। রাতেই আহত ছাত্রের বাবা আলাউদ্দিন বাদী হয়ে অভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে জীবননগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

পরে আজ বৃহস্পতিবার ভোরে অভিযুক্ত শিক্ষক মাজেদ হোসেন ও শাহিন হোসেনকে আটক করে পুলিশ। পরে তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মাদরাসা ছাত্র নাসিম হোসেন উপজেলার কাশিপুর গ্রামের আলা উদ্দিনের ছেলে।

নাসিমের বাবা আলাউদ্দিন মিয়া জানান, বুধবার (২১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় উপজেলার কাশিপুর দারুল উলুম কওমী মাদ্রাসায় তার ছেলেকে পিটিয়ে আহত করা হয়। রাতেই বিষয়টি জানতে পেরে তিনি বাদী অভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে জীবননগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পরে বৃহস্পতিবার সকালে অভিযুক্ত শিক্ষক মাজেদ হোসেন ও শাহিন হোসেনকে আটক করে পুলিশ। বৃহস্পতিবারই তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

পুলিশ জানায়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সন্ধ্যায় মাদ্রাসা শিক্ষক মাজেদ হোসেন নাসিমকে মারধর করে শ্রেণিকক্ষে আটকে রাখে। তখন নাসিম পালানোর চেষ্টা করলে শিক্ষক শাহিন হোসেন তাকে আবারও মারধর করে আটকে রাখে। পরে রাতে তাকে উদ্ধার করে তার পরিবারের সদস্যরা।

জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, আহত মাদরাসা ছাত্র নাসিমের বাবা আলাউদ্দিন বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।