মাদারীপুরে হাতুড়ি পেটা করে টাকা ছিনতাই

প্রকাশিত: ৬:৪৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০১৮ | আপডেট: ৬:৪৪:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০১৮

মাদারীপুরে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই করার জন্য হাতুড়ি পেটা করে হান্নান হাওলাদার নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার চেষ্টা করেছে একই এলাকার রাজ্জাক হাওলাদের ছেলেসহ ৮-১০জন বখাটে।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে সদর উপজেলার মোস্তফাপুর বাসস্ট্যান্ডের পশ্চিম পাশে একটি বালুর মাঠে। হান্নান হাওলাদার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের জয়াইর এলাকার নুরু ইসলাম হাওলাদারের ছেলে। এই ঘটনায় ঐদিন রাতেই সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

মামলা ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, হান্নান সোমবার সন্ধ্যায় তার সোনারতরী কাউন্টার থেকে বিদেশ থেকে আসা ১লক্ষ ৫হাজার টাকা নিয়ে মোস্তফাপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে জয়াইর নিজ বাড়ির উদ্দেশে পায়ে হেটে তার ছোট ছেলে ইয়াসিনকে নিয়ে রওনা দেন। মোস্তফাপুর ইমদাদুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার আগে একটি বালুর মাঠে পৌছালে পূর্বে ওৎ পেতে থাকা কয়েকজন বখাটে পিছন থেকে আঘাত করে এবং ছোট ছেলে পালিয়ে যায়। এসময় হান্নানকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। বখাটেরা ভেবে ছিল সে মারা গেছে তাই পাশের গাছের পাতার মধ্যে লুকিয়ে রেখে টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

তবে হান্নানের ছেলে ইয়াসিন বাসস্ট্যান্ডে এসে পরিচিত কয়েকজনকে জানালে তারা অনেক খোঁজাখুঁজির পর গাছের পাতার মধ্যে থেকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এরপর ঐদিন রাত ১২টার দিকে মাদারীপুর সদর থানায় হান্নানের ছোট ভাই নাহিদ বাদী হয়ে রায়হান হাওলাদরকে প্রধান আসমি করে ৮জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলা নং-৫।

হান্নানের ছোট ভাই নাহিদ বলেন, আমার ভাইকে টাকার জন্য হত্যা করতে চেয়েছিল। আল্লাহ আমার ভাইকে বাচিয়ে দিয়েছে। আমার ভাইকে যারা হত্যার চেষ্টা করেছে তাদের নামে থানায় মামলা করেছি। আমি চাই অতিসত্তর আসামিদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ বিচারের আওতায় আনবে।

মাদারীপুর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। আমরা আসামিদের গ্রেপ্তার করা চেষ্টা করছি।