মার্কিন কর্মকর্তা-জামায়াত নেতার সম্ভাব্য বৈঠক নিয়ে আইপিটির নিন্দা

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৩৬:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

লন্ডনে বসবাসরত জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র সফর করবেন। মার্কিন কংগ্রসের কর্মকর্তা, গবেষণা সংস্থা ও সন্ত্রাসবিরোধী পর্যবেক্ষক সংস্থার দেওয়া তথ্য থেকে সোমবার জানা গেছে, এ সফর আগামী অক্টোবর মাসে অনুষ্ঠিত হতে পারে। মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের সম্ভাব্য বৈঠকের বিষয়ে আপত্তি জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘দ্য ইনভেস্টিগেটিভ প্রোজেক্ট অন টেরোরিজম’ (আইপিটি)।

জামায়াতে ইসলামীর চরমপন্থী ইসলামি রাজনীতির অনুসারী হওয়া ও দশকের পর দশক ধরে সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগ তুলে সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মার্কিন নীতি প্রণেতাদের উচিত না এমন এমন সংগঠনের সদস্যকে অতিথি হিসেবে গ্রহণ করা। তারা প্রশ্ন রেখেছেন, ‘ওয়াশিংটনের কর্মকর্তারা কি আদৌ জানেন, তারা কার সঙ্গে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন?’

‘দ্য ইনভেস্টিগেটিভ প্রোজেক্ট অন টেরোরিজমের’ ভাষ্য, জামায়েতে ইসলামী পুরো দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে সহিংসতার ঘটনা ঘটিয়েছে এবং বর্তমানে এর বাংলাদেশি শাখা বাংলাদেশ ও ভারত উভয় দেশেই ইসলামি জঙ্গিবাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত।

২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র কাশ্মিরের হিজবুল মুজাহিদিন এবং পাকিস্তান জামায়াতে ইসলামির ‘সামরিক শাখাকে’ সন্ত্রাসী সংগঠন আখ্যা দিয়েছে উল্লেখ করে সংস্থাটি বলেছে, ‘জামায়াতে ইসলামি এমন সংগঠন যারা প্রকাশ্যে তালেবানদের সমর্থন দেয় এবং তাদের সদস্যদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে।’