মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মুখে রাশিয়া-চীন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০২ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮ | আপডেট: ৯:০২:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮

টিবিটি আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে উত্তর কোরিয়াকে অর্থনৈতিক সাহায্য দেয়ায় রাশিয়া ও চীনের বেশ কয়েকটি বাণিজ্যিক সংস্থার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ট্রাম্প প্রশাসন।

বুধবার এই সংক্রান্ত একটি তালিকা প্রকাশ করেছে মার্কিন ট্রেজারি দপ্তর৷ সেখানে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসা পরিচালনাকারী একাধিক রুশ ও চীনা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরেপ করা হয়েছে৷ আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক মহলের ধারণা, নিরস্ত্রীকরণ ইস্যুতে পিয়ংইয়ং-এর উপরে চাপ সৃষ্টি করার জন্যই এই পন্থা বেছে নিয়েছে ওয়াশিংটন৷

প্রকাশিত তালিকায় নাম রয়েছে, চীনা সংস্থা দালিয়ান সান মুন স্টার ইন্টারন্যাশনাল লজিস্টিক ট্রেডিং কোম্পানি, লিয়াঙ্গ ইয়ে ও এসআইএনএসএমএস’র৷ এসব কোম্পানি উত্তর কোরিয়াতে সিগারেট ও অ্যালকোহল রপ্তানি এবং জ্বালানি তেলের ব্যবসা করেছে ৷ যার ফলে গত বছরে পিয়ংইয়ং-এর আয় হয়েছে প্রায় এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার৷

একইভাবে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে রুশ সংস্থা প্রফিনেটকে৷ অভিযোগ, রাষ্ট্রসংঘের নিষেধাজ্ঞাকে পাত্তা না দিয়ে উত্তর কোরিয়ার বেশকিছু জাহাজে মালপত্র খালাসে সাহায্য করেছে সংস্থাটি৷ জাহাজগুলিতে ভরে দিয়েছে জ্বালানি৷

এই সংস্থাকে কালো তালিকাভুক্ত করেই থেমে থাকেনি মার্কিন ট্রেজারি দপ্তর৷ ষড়যন্ত করার ঘোরতর অভিযোগ এনেছে সংস্থার ডিজি আলেকজান্দ্রোভিচ কোলছানোবের বিরুদ্ধে৷

নিষেধাজ্ঞা উড়িয়ে রমরমিয়ে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা, বেআইনি অস্ত্র ব্যবসা ও অন্যান্য ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে উত্তর কোরিয়া৷ সম্প্রতি জাতিসংঘে এই সংক্রান্ত ১৪৯ পাতার এক রিপোর্টে বলা হয়, জাহাজে করে সমুদ্র পথে বিভিন্ন দেশে পেট্রোলিয়াম পণ্য ও কয়লা সরবরাহ করছে পিয়ংইয়ং৷ সকলের অলক্ষ্যে চালাচ্ছে ব্যালিস্টিক মিসাইলের চোরাচালান৷ এমনকি, সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ইতিবাচক বৈঠকের পরেও গোপনে পারমাণবিক অস্ত্র ও মিসাইল প্রযুক্তির উন্নতি ঘটিয়ে চলেছেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন৷

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন