মালয়েশিয়ায় ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় নারীসহ গ্ৰেফতার ৪ রোহিঙ্গা

শেখ সেকেন্দার আলী শেখ সেকেন্দার আলী

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৮:০৪:অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০২০

দীর্ঘদিন মালয়েশিয়ায় অবস্থান করার কারণে বোঝা দায়, তারা রোহিঙ্গা নাকি স্থানীয় নাগরিক। বেশ দিব্বি চলছিলো ডাকাতি ও ছিনতাই। নাম দিয়েছিলো সাকি- বাকি গ্যাং।

দীর্ঘ দুই মাস ২০ লাখ টাকার বেশি ডাকাতি ও ছিনতাই করে কামিয়েছে রোহিঙ্গা গ্যাং সাকি- বাকি। কিন্তু পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে আর চলা হলো না রোহিঙ্গা গ্যাংদের। গত ২৭ মে মালয়েশিয়ার জহর প্রদেশে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার হয় সাকি- বাকি গ্যাংয়ের ৪ জন সদস্য। যার মধ্যে রয়েছে একজন ৩০ বছরের নারী।

এসময় উদ্ধার করা হয় প্রায়ভেট কার, মটর সাইকেল,স্বর্ণ অলংকার, মোবাইল ফোন সহ নগদ টাকা। জহর প্রদেশের কুলাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোক বিন ইয়াও বলেন, দুটি পৃথক অভিযানে সাকি- বাকি গ্যাংয়ের রাহমান,হাছান ও ভাইয়াসহ একজন নারীকে গ্ৰেফতার করা হয়। পুরুষদের বয়স আনুমানিক ২৭ বছর। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে ১৫ টি বাড়িতে ডাকাতি সহ জহর বারু ও কুলাই এলাকায় চুরি ছিনতাইয়ের মামলা রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, একমাস আগে আমরা এই গ্যাংয়ের সদস্যদের গ্রেফতার করে। তিনি আরো বলেন গ্রেফতারকৃত রোহিঙ্গারা দুটি গ্যাংয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বলে ধারণা করা হচ্ছে। গ্রেফতারকৃত রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সে দেশের আইনের ৪৫৭ ধারায় ৭ দিনের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।