মালয়েশিয়ায় মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণের পর হত্যা, বাংলাদেশি আটক

শেখ সেকেন্দার আলী শেখ সেকেন্দার আলী

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৬:০৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৭, ২০২০ | আপডেট: ৬:০৪:অপরাহ্ণ, জুন ২৭, ২০২০

মালয়েশিয়ায় মুক্তিপণের দাবিতে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ ও হত্যার অভিযোগে এক বাংলাদেশিসহ সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ। সেদেশের দাতুক সেরি খেতাবি ব্যবসায়ি গত ১০ জুন বান্দর শ্রী দামসানায় জগিং করতে গিয়ে অপহৃত হয়েছিলেন।

৩০ থেকে ৫০ বছর বয়সী সাত অভিযুক্তদের শুক্র ও শনিবার টানা দু’দিনের অভিযানে এদের আটক করা হয়। সেলাঙ্গরের সিআইডির চিফ সিনিয়র অ্যাসি: কম দাতুক ফাদজিল আহমত সাংবাদিকদের জানান, অভিযুক্তদেররা ১০ জুন ভিকটিমকে অপহরণ করার পরে তার পরিবারের ১৫৪ মিলিয়ন মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত মুক্তিপণ চেয়েছিল। তবে মুক্তিপণ দেওয়া হয়নি।

২৭ জুন শনিবার রাওয়াংয়ের তামান কোসাসোর যে বাড়িতে ওই ব্যবসায়ী হত্যার শিকার হয়েছিলেন, সেই বাড়িটি পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের তিনি আরও জানান, অভিযুক্তদের তদন্তে সহায়তা করার জন্য বাড়িতে আনা হয়েছিল।

ফাদজিল বলেন, আজ শনিবার সকাল ৯ টায় অভিযুক্তদের মধ্যে একজন পুলিশকে নিহতের লাশের সন্ধান দেয়। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায়, ভিকটিমকে অপহরণের পরে তিন থেকে চার দিনের মধ্যে মেরে ফেলা হয় এবং ইতিমধ্যেই দেহটি পচন ধরেছে। হত্যার শিকার ব্যবসয়ির দেহটি সনাক্ত হওয়ার পর লাশটি ময়না তদন্তে সুঙ্গাই বুলোহ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ফাদজিল বলেন, এখনও অপহরণের পেছনের উদ্দেশ্য এবং মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধান চলছে।

তবে প্রাথমিক দন্তে অপহরণের পিছনে মাস্টারমাইন্ডরা নিহত ব্যবসয়ির পরিচিত ছিল বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। পুলিশ অপহরণ ও হত্যা কান্ডের ঘটনায় ৩৬৫ ও ৩ ধারায় তদন্ত শুরু করেছে।