মুরগীর কলিজা বিক্রেতার কাছে চাঁদা দাবি, যুবলীগ নেতাসহ আটক ৩

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৪৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯ | আপডেট: ১১:৪৩:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
ছবিঃ সংগৃহিত

গাজীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ গাজীপুরের শ্রীপুরস্থ কাজী ফার্মের মুরগীর মাংস, গিলা-কলিজা কারখানা থেকে বাহিরে সরবরাহকারীর কাছে চাঁদা দাবি করায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে।

আটককৃতরা হলেন-আওয়ামীলীগ নেতা কাওরাইদ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি)’র সাবেক চেয়ারম্যান ও যুগীরসিট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাই (৫৫), জেলা যুবলীগের সদস্য নয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল বাতেন মণ্ডলের ছেলে কামরুল হাসান মণ্ডল (৪০) ও যোগিরসিট গ্রামের আব্দুল মজিদ সরকারের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম ওরফে টাইগার জাহাঙ্গীর (৩৫)।

তাদের মধ্যে কামরুল ইসলাম মণ্ডল সদ্য সমাপ্ত কাওরাইদ ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে না পেয়ে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন।

গাজীপুর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি আফজাল হোসেন জানান, উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের যোগিরসিট এলাকায় কাজী ফার্মস নামের একটি প্রতিষ্ঠানে মুরগীর মাংস প্রক্রিয়াজাতকরণ করে আসছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. আরিফুর রহমান ওই প্রতিষ্ঠানের মুরগীর মাংস, গিলা-কলিজা সেখান থেকে বাইরে সরবরাহ করে থাকেন। আরিফুর রহমানকে মুরগীর গিলা-কলিজা ওই ফার্ম থেকে বাহিরে বের করতে গেলে আটককৃতদেরকে কেজি প্রতি এক টাকা করে চাঁদা দিতে হত।

সম্প্রতি তারা এক টাকার স্থলে কেজি প্রতি দুই টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। তারা আরিফের কাছে পাঁচ লাখ টকা দাবি করে। তিন লাখ টাকাও লেনদেন হয়।

বাকি টাকার জন্য আরিফকে হুমকি দিলে শুক্রবার ভোর রাতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে একটি অভিযান চালিয়ে ওই তিনজনকে গ্রেফতার করেছে।

এ ব্যাপারে ওই তিনজনসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে শ্রীপুর থানায় মামলা হয়েছে।