‘মুসলমানদের মধ্যে বিবেদ সৃষ্টি করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র’

প্রকাশিত: ৪:৪৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৪৫:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৮

মুসলমানদের মধ্যে বিবেদ সৃষ্টি করাসহ একজনকে দিয়ে অপরজনকে হত্যা করাচ্ছে বলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনী। আজ সোমবার হাজিদের উদ্দেশে দেওয়া এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইসলাম ধর্ম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে সাম্রাজ্যবাদী ও অপরাধী আমেরিকার মূলনীতি হলো যুদ্ধকামিতা। তাদের ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র ও অপচেষ্টা হলো এমন যে, মুসলমানদেরকে দিয়েই মুসলমানদেরকে হত্যা করা।

যুক্তরাষ্ট্র মজলুমের বিরুদ্ধে জালিমদেরকে উসকানি দিচ্ছে উল্লেখ করে খামেনী বলেন, জালিমদেরকে প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে, জালিমদেরকে দিয়ে মজলুমদেরকে নির্মমভাবে দমন করাচ্ছে এবং ভয়ানক বিভেদের আগুনের তীব্রতা বাড়িয়ে তুলছে ও তা ছড়িয়ে দিচ্ছে।

মুসলমানদের বিরুদ্ধে এ ষড়যন্ত্র রুখতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ অবস্থায় মুসলমানদেরকে অবশ্য সতর্ক থাকতে হবে এবং সতর্কতার মাধ্যমে এই শয়তানি নীতি ব্যর্থ করে দিতে হবে।

হজ হচ্ছে এই সতর্ক হওয়ার ক্ষেত্র। এটিই হচ্ছে মুশরিক ও সাম্রাজ্যবাদীদের সঙ্গে বাবারাত বা সম্পর্কচ্ছেদের দর্শন।

হজ একই স্থানে একটি নির্দিষ্ট সময়ে নিয়মিতভাবে প্রতিবছর স্পষ্ট ও যৌক্তিক ভাষায় মুসলমানদেরকে ঐক্যের আহ্বান জানায়। কিন্তু এর বিপরীতে ইসলামের শত্রুরা সব সময়ই মুসলমানদেরকে একে অপরের মুখোমুখি দাঁড় করানোর চেষ্টা চালিয়েছে এবং এখনও একই কাজ করে যাচ্ছে।

এসময় তিনি হজ সম্পর্কে বলেন, হজের রুহ বা আত্মা হচ্ছে আল্লাহকে স্মরণ করা। আমাদেরকে সব সময় আল্লাহর এই রহমতের বৃষ্টির মাধ্যমে নিজেদের মনকে প্রফুল্ল ও প্রাণবন্ত করে তুলতে হবে।

আল্লাহর প্রতি নির্ভরতা ও বিশ্বাস হচ্ছে শক্তি, মর্যাদা, ন্যায়পরায়নতা ও সৌন্দর্যের মূল উৎস। আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস ও নির্ভরতাকে আমাদের মনে সুদৃঢ় করতে হবে। আর এভাবেই আমরা শত্রুর মোকাবেলায় বিজয়ী হতে পারব।

এসময় তিনি হাজিদের কাছে মুসলিম উম্মার জন্য দোয়া করার আহ্বান জানান। পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রসহ সব সাম্রাজ্যবাদী এবং তাদের সমর্থকদের কালো হাত আল্লাহ যেন ভেঙ্গে দেন এই দোয়া কামনা করেন।

সূত্র: তেহরান টাইমস।