‘মেইড ইন ফ্রান্স’ লেখা ৯ কোটি টাকার সাপের বিষ উদ্ধার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:৫৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৬, ২০২০ | আপডেট: ৪:৫৬:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৬, ২০২০

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) গাজীপুরের থেকে প্রায় ৯ কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষ উদ্ধারসহ ক্রয়-বিক্রয় ও পাচারকারী চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ রেজাউল হায়দার এসব তথ্য জানান।

এর আগে, গতকাল বুধবার (২৫ নভেম্বর) রাতে গাজীপুর কালিয়াকৈর এলাকা তাদেরকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, মামুন তালুকদার (৫১) এবং মো. মামুন (৩৩)।

সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ রেজাউল হায়দার বলেন, গত ১৭ সেপ্টেম্বর সিআইডি ঢাকা মেট্রোর একটি টিম গাজীপুর জেলার বাসন থানা এলাকা থেকে সাপের বিষ ক্রয়-বিক্রয় ও পাচারকারী চক্রের ১ জনকে গ্রেপ্তার করে।

সেই মামলার তদন্তকালে আমরা জানতে পারি যে, এরকম পাচারকারী আরও কয়েকটি বড় ধরনের চক্র সক্রিয় রয়েছে। তার ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গতকাল ২৫ নভেম্বর রাতে প্রায় ৯ কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত মালামালগুলো হলো, ২টি বড় লকার, ৬টি কাঁচের কৌটায় সংরক্ষিত সাপের বিষ। এর প্রত্যেকটি বোতলের গায়ে কোবরা স্নেক পয়জন অফ ফ্রান্স, রেড ড্রাগন কোম্পানি, কোবরা কোড নং-৮০৯৭৫, মেইড ইন ফ্রান্স লেখা আছে। এছাড়া একটি ক্যাটালগ বই পাওয়া গেছে।

সিআইডি জানায়, আটককৃতদের কাছ থেকে ২টি লকার পাওয়া যায় এর মধ্যে ১টি লকার খালি ছিল কিন্তু অপরটিতে মোট ৬টি কনটেইনার পাওয়া যায়। যার প্রত্যেক কনটেইনারে ১ কেজি পরিমাণে কোবরা সাপের বিষ আছে। এর বাজার মূল্য কেজি প্রতি আনুমানিক দেড় কোটি টাকা করে। মোট ৯ কোটি টাকার বিষ জব্দ করা হয়। বিষগুলো আমাদের ল্যাবে পাঠানো হবে তারপরে বোঝা যাবে এটা আসলে কোন লেভেলের বিষ।

তিনি বলেন, এটি চোরাচালানের একটি অংশ অবৈধ লেনদেন করার সুযোগ নেই। আমাদের এখান থেকে ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া থেকে এসব সাপের বিষ লেনদেন হয়। বাইরের দেশে এটার একটা মার্কেট আছে কিন্তু এটি বাংলাদেশের ভেতরের মার্কেট নয়। কনটেইনার গুলোতে লেখা আছে মেইড ইন ফ্রান্স। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।