মেসি আমার জন্য বিপদে পড়েছিলেন : গ্রিজমান

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:০৭:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০

কিছুদিন আগে ‘ফ্রান্স ফুটবল’ সাময়িকীর একটি সংবাদে পুরো ফুটবল বিশ্ব নড়েচড়ে ওঠে। বার্সেলোনায় আতোঁয়ান গ্রিজমানের বাজে খেলার পেছনে লিওনেল মেসিকে অভিযুক্ত করেন তার সাবেক এজেন্ট এরিক ওলহাটস ও চাচা ইমানুয়েল লোপেজ। স্বাভাবিকভাবেই গ্রিজমানের কাছে দুইজনের মন্তব্য ফুটবল বিশ্বে তা গৃহীত হয়। কিন্তু এ দুইজনের সঙ্গে কোনো ধরণের সম্পর্কই নেই বলে জানান এ ফরাসি।

গত কয়েকদিন ধরে লিওনেল মেসি আর আঁতোয়ান গ্রিজমানকে নিয়ে বেশ শোরগোল হচ্ছে। গ্রিজমানের এক স্বজন অভিযোগ করেছেন, মেসির কারণেই তার ক্যারিয়ার হুমকির মুখে পড়েছে। বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার পর থেকেই গ্রিজমান ফর্ম হারিয়ে ফেলেছেন। এরপর ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে মেসি বলেছিলেন, এত অভিযোগ শুনতে শুনতে তিনি ক্লান্ত। এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন মেসির বার্সেলোনা সতীর্থ গ্রিজমান।

‘ইউনিভার্সো ভালদানো’ নামের এক অনুষ্ঠানে গিয়ে মেসির সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে গ্রিজমান বলেন, ‘আমি যখন এই ক্লাবে যোগ দিয়েছিলাম, তখন দলবদল পিছিয়ে দেওয়া এবং বার্সেলোনায় যোগ দেব না- এসব বলার জন্য ক্ষমা চেয়েছি। আমি মেসিকে বলেছি, এ ক্লাবের জন্য মাঠে আমার সর্বোচ্চ দেব। যখন প্রথম এসেছি, তখনই মেসির সঙ্গে কথা বলেছি। তখন আমাকে মেসি বলেছিলেন, যখন প্রথমবার আমি ক্লাবে যোগ দিইনি, তখন উনি বেশ বিপদে পড়েছিলেন। কারণ তিনি প্রকাশ্যেই আমার দলবদলের ব্যাপারে কথা বলেছিলেন। এখন প্রতিদিনই টের পাই যে তিনি আমার পক্ষেই আছেন।’

বিতর্কের শুরুটা আসলে করেছেন গ্রিজমানের সাবেক এজেন্ট এরিক ওলহাটস এবং মামা এমানুয়েল লোপেজ। এ বিষয়ে গ্রিজমান বলেন, ‘সে (ওলহাটস) আমার জীবনে একসময় খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন। কিন্তু এখন তার সঙ্গে আমার আর কোনো সম্পর্ক নেই। যেদিন বিয়ে করেছি, সেদিন থেকেই তার সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। আমার বিয়েতে তাকে নিমন্ত্রণ পাঠিয়েছিলাম কিন্তু আসেনি। এ কারণেই তার সঙ্গে আর কোনো সম্পর্ক রাখিনি। আমার মা-বাবাও এরিকের সঙ্গে কথা বলেন না। তাহলে তার সঙ্গে কে কথা বলতে যাবেন? তিনি অনেক ক্ষতি করতে পারেন, ড্রেসিংরুমে অনেক ঝামেলা সৃষ্টি করতে পারেন।’

এরপর আসে মামা এমানুয়েল লোপেজের প্রসঙ্গ। ওলহাটসের মতো মামার কথাও উড়িয়ে দেন গ্রিজমান, ‘আমার মামা জানেই না ফুটবলে কী হয়। আর সাংবাদিকেরা তার কাছ থেকে কথা বের করেছে, আমি মেসিকে বলেছি এদের সঙ্গে আমার কথা হয় না। আমার কাছে তো আমার মামার নম্বরও নেই!’